ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ৫:১০ অপরাহ্ন

শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক হলেন খান শওকত

  • আপডেট: Saturday, April 27, 2024 - 9:29 am
  • পঠিত হয়েছে: 62 বার

টপ নিউজ ডেস্ক: প্রবাসের পরিচিত মুখ বঙ্গবন্ধু গবেষক এবং মুজিব পাগল খ্যাত নাট্যকার খান শওকতকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক পদে মনোনীত করা হয়েছে। গত ১৭ই এপ্রিল তারিখে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান এবং সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ স্বাক্ষরিত পত্রে এ মনোনয়ন নিশ্চিত করা হয়েছে। দলের কর্মকান্ড গতিশীল করতে সম্প্রতি দলীয় প্রধানের নির্দেশে শূন্য পদ সমুহ পুরনের যে নির্দেশ এসেছে তা বাস্তবায়নের জন্য দলের নিবেদিতপ্রান কর্মীদেরকে শূন্য পদ সমুহে কো-অপট করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সেই কর্মসুচীর মধ্যেই নাট্যকার খান শওকতকে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হলো।

এই মনোনয়নপত্র হাতে পাওয়ার পর খান শওকত বলেন, ১৯৮১ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত ঢাকার মোহাম্মদপুরে এবং কাটাশুর বাজারে “জয় বাংলা” নামে দেয়াল পত্রিকা বের করতাম। ১৯৮৫ সালে আবুজর গিফারী কলেজে শিক্ষকতার সময় ছাত্রলীগের উপদেষ্টা হই এবং পরের বছর জয় বাংলা পরিষদের সভাপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে তার ধানমন্ডির বাসভবনে দেখা করি এবং দলের প্রাথমিক সদস্য হই। কিন্তু সক্রিয় রাজনীতির চেয়ে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কাজ করতে আমি বেশী স্বাচ্ছন্দ বোধ করি, তাই সেগুলোই করছিলাম। ১৯৯০ সালে আমি নিউইয়র্কে চলে আসি। ১৯৯৬-৯৭ সালে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করি। ঐ সময় “কেন তিনি জাতির পিতা” নামে অডিও ক্যাসেট নির্মান করি, পরবর্তীতে সেটি ডকুমেন্টারি ফিল্ম বানাই। দীর্ঘ ১ যুগ ধরে যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় শ্রমিক লীগের সহ সভাপতি, গত প্রায় ১ যুগ বঙ্গবন্ধু থিয়েটারের সভাপতি, গত ৪ বছর যাবত যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক, গত ২ বছর যাবত বঙ্গবন্ধু সাহিত্য একাডেমীর যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি, এবং গত ৬ বছর যাবত ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসব পরিষদের সভাপতিসহ বঙ্গবন্ধুর উপর ৩৫টা নাটক রচনাসহ নানান ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর পক্ষে কাজ করছি। আর বাংলাদেশ সোসাইটিতে দুই টার্ম সাহিত্য সম্পাদক থাকাকালে সোসাইটি ভবনে ১৫ই আগষ্টে জাতীয় শোক দিবস পালনে ভুমিকা রাখি। এসব দায়িত্বের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মতো বিশাল সংগঠনে কোন দায়িত্ব পাওয়া মুজিব সৈনিক হিসেবে এ এক পরম প্রাপ্তি। এ দায়িত্ব গর্বের। আমি কৃতজ্ঞ, আমি আনন্দিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার নির্দেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির শূন্য পদ পূরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আমাকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের “উপ-প্রচার সম্পাদক” মনোনীত করায় বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী শ্রদ্ধাভাজন জননেতা ওবায়দুল কাদের এম.পি, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি শ্রদ্ধাভাজন নেতা ড. সিদ্দিকুর রহমান ভাই ও সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ ভাইসহ সকল নেতৃবৃন্দের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমেরিকার ৫০টি ষ্টেটের নেতৃবৃন্দের সাথে আমাদেরকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে।

আমি আমার সর্বশক্তি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য সচেষ্ট থাকবো, স্মার্ট যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ গঠনে নিবেদিতপ্রান হয়ে কাজ করবো, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত কে শক্তিশালী করতে এবং আসন্ন সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান সফল করতে আমি আমার সর্বস্ব দিয়ে কাজ করবো।

খান শওকত বলেন,আমি আপনাদের সহযোগিতা চাই। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন, আমি যেন আপনাদের দেয়া এই দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করতে পারি। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হোন।