ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ২:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

বেলকুচিতে ফের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির পদ নিয়ে পৌর মেয়রের সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলার অভিযোগ

  • আপডেট: Thursday, May 16, 2024 - 3:47 pm
  • পঠিত হয়েছে: 22 বার

টাচ নিউজ ডেস্ক: জালিয়াতি করে গঠিত বেলকুচির সোহাগপুর নতুন পাড়া আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিনিধি দলের সাথে সাক্ষাৎকার দিতে আসা অভিভাবকদের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে পৌর মেয়র সাজ্জাদুল হক রেজার বিরুদ্ধে।

রেজা গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর বিধি নিষেধ অমান্য করে গোপনে চতুর্থ বারের মত একই বিদ্যালয়ে সভাপতি নির্বাচিত হন। এই কমিটির বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়ে সুর্বণসাড়া গ্রামের সোহেল রানা সংশ্লিষ্ট দপ্তরে একটি অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।

এর আগে মেয়র রেজা জাল সনদ দিয়ে বেলকুচি মডেল ডিগ্রি কলেজের সভাপতির পদ প্রতারণা করে বাগিয়ে নিলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্তে প্রমানিত হওয়ায় তাকে সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর।

এ নিয়ে দ্বিতীয় বারের মত জালিয়াতি করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কমিটি দখলের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়রা জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে দ্রæত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন।

জানা যায়, বেলকুচি উপজেলার প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত সোহাগপুর নতুন পাড়া আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়। এই প্রতিষ্ঠানে ২০১৯ সালে প্রথমবারের মত ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয় সাজ্জাদুল হক রেজা। এর পর থেকে নিজের প্রভাব প্রতিপত্তি খাটিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একক রাজত্ব কায়েম করে রেজা।

পরবর্তীতে নিজের খেয়াল খুশি ও পছন্দের লোকজন দিয়ে পরপর তিনবার সভাপতির পদ কৌশলে বাগিয়ে নেয়। এতে স্থানীয় এলাকাবাসি ও অভিভাবকদের মধ্যে চাপাক্ষোভ ও উক্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

একারনে বিদ্যালয়ের শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ বিঘœ হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা নিয়ে গ্রুপিং সৃষ্টি হলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে দাবি উঠে নিয়মতান্ত্রিক ম্যানেজিং কমিটি গঠনের মধ্যে দিয়ে শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ ফিরিয়ে আনা হোক।

এ দাবি বাস্তবায়নে জালিয়াতি করে গঠিত কমিটির বিরুদ্ধে গত বছরের পহেলা জুন অভিযোগ দেয়া হয়। সেই অভিযোগ তদন্তে বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে আসা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের প্রতিনিধি দলের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে আসে অভিভাবকরা। এ তদন্ত প্রভাবিত করতে ও নিজের পক্ষে কথা বলতে বেলকুচি পৌর সভার মেয়র সাজ্জাদুল হক রেজা অভিভাবকদের চাপ সৃষ্টি করেন।

মিথ্যা তথ্যের পক্ষে কথা বলতে নারাজ হওয়ায় ক্ষেপে গিয়ে রেজার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী বিদ্যালয় চত্বরে প্রবেশ করে হামলা ও মারপিট করে। এতে অভিভাবক

তদন্ত দলের একটি সূত্র জানায়, তদন্ত চলমান থাকা অবস্থায় রুমের বাহিরে কিছুটা বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়েছে। এখানে শুধু মাত্র প্রয়োজনীয় ব্যক্তিদের ডাকা হয়েছে। বিদ্যালয়ের অভিযুক্ত সভাপতি রেজা নিজের দলবল নিয়ে প্রবেশ করেন,এতেই বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়।

এবিষয়ে বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ফাষ্টবয় (গ শাখা) আল ইমরান এর পিতা ও বেলকুচি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী শেখ জানান, তদন্ত দলের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে দেখি অভিযুক্ত সভাপতি রেজা প্রতিনিধি দলের কাছে বসা। এসময় প্রতিনিধি দলের কাছে অভিযোগ দেয়ার আগে অভিযুক্ত সভাপতিকে বাহিরে বের হতে বলা হয়। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে বাহিরে বের হয়ে যায় সে। পরবর্তীতে এ বিষয়ে তদন্ত দলের সাথে কথা বলা শেষে বাহিরে ফিরতেই রেজা ও তার লোকজন হামলা ও মারপিট করে। এসময় তার সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা আমাদের মত অভিভাবকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এর তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানাই।

এবিষয়ে সোহাগপুর নতুন পাড়া আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহেদী মাসুদ জানান, তদন্ত দলের প্রতিনিধিরা অভিভাবকদের কাছ থেকে শুনানি করছিলো। এসময় বাহিরে কিছুটা হট্টেগোলের সৃষ্টি হয়। এসময় দু’পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে মারপিটের ঘটনাও ঘটে। এঘটনায় ইতোমধ্যেই প্রশাসনকে অবগত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বেলকুচি থানার ওসি আনিছুর রহমান জানান এঘটনায় সোহাপুর আলহাজূ সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায়সহ উপজেলা সদরে নিরাপত্তা জোরদারে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।