ঢাকা | মে ২১, ২০২৪ - ৬:০১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

চাটখিলে ফসলে জমির মাটি বিক্রি মহা উৎসব ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা 

  • আপডেট: Monday, April 29, 2024 - 7:44 am
  • পঠিত হয়েছে: 49 বার

আনিছ আহম্মদ হানিফ,চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় মাটি কাটার উৎসব নোয়াখলা ইউনিয়নের এক মাঠের ব্যবসায়ীকে অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
চাটখিল উপজেলার ৮ নং নোয়াখোলা ইউনিয়নের গতকাল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ এহসান উদ্দিন এর নির্দেশে চাটখিল উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি সাধুরখিল এলাকায় সরকারের নিষিদ্ধ কৃষি ফসলি জমি থেকে মাটি বিক্রি অপরাধে একজনকে অর্থ দন্ড প্রদান করেছে।কৃষি জমি হতে অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলনের অপরাধে আব্দুল মান্নান (৪২), পিতা: আবুল খায়ের-কে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১০ মোতাবেক ০১ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জনাব আকিব ওসমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি), চাটখিল, নোয়াখালী। অভিযান পরিচালনার সময় ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সহযোগিতা করে। এছাড়াও ইউপি মেম্বারসহ এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।
প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত সারা বাংলাদেশে আবাদি ফসলি জমি নষ্ট না করে জমির উপরের মাটি বিক্রি বন্ধ করার নির্দেশ দেন । কিন্তু চাটখিল উপজেলার সকল ইউনিয়ন এবং পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা কে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে মহা উৎসবে মাটি কাটা ও বিক্রি চলছে এতে করে সরকারের কোটি কোটি টাকা নির্মিত সকল পাকা রাস্তা নষ্ট হচ্ছে এবং ওই রাস্তাগুলো দিয়ে জনসাধারণ স্কুল কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রী এম্বুলেন্স বহনকারী রোগী যাতায়াতের কষ্ট হচ্ছে । বৃষ্টি হলে ঐ সমস্ত রাস্তা দিয়ে মাটি বহন কারী গাড়ির চলাচল করার কারণে সরবরাহকারী ট্রাকের মাটি ঝরে পড়ে অনেক মটরসাইকেল রিক্সা ও সিএনজি অটোরিকশা এক্সিডেন্ট করে। এমনি ভাবে গত কিছুদিন পূর্বে চাটখিল রামগঞ্জ মহাসড়কে ভীমপুর মাসি ব্যাপারী বাড়ির সামনে বৃষ্টির সময় ঝরে পড়া মাটিতে পিছলিয়ে পড়ে এক মটরসাইকেল আরোহী এক্সিডেন্ট করে ঘটনাস্থলে নিহত হয় ।এছাড়াও পরিবেশ দূষিত হচ্ছে এভাবে চলতে থাকলে অচিরেই ঐ রাস্তা গুলি বিলীন হয়ে যাবে চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ এহসান উদ্দিন ও সহকারী কমিশনার ভূমি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আকিব ওসমান একাধিকবার বিভিন্ন ইউনিয়নে মাটি কাটা বন্ধ করেন এবং অর্থদণ্ড প্রদান করেন। তারপরেও মাটি ব্যবসায়ীরা তাদের কাজ দিব্যি আরামে করে যাচ্ছেন তারা এখন প্রশাসনের ভয়ে অনেকে দিনে মাটি কাটা বন্ধ রেখে কৌশলে সন্ধ্যা থেকে ভোর রাত পর্যন্ত মাটি বিক্রিও সরবরাহ করে থাকেন। অনেকে আবার নতুন নতুন পন্থায় নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দরখাস্ত দিয়ে কেউ বাড়ি নির্মাণ কেহই ওই মৎস্য প্রজেক্ট করার মিথ্যা অভিনয় করে অনুমতি প্রার্থনা দরখাস্ত করতেছেন।
চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ এহসান উদ্দিন এ ব্যাপারে সংবাদ কর্মীদের কে জানান
জনকল্যাণে উপজেলা প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।