ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ২:০২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

আল-হেরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের বার্ষিক অনুষ্ঠান ও ১০ বিসিএস ক্যাডারকে সংবর্ধনা

  • আপডেট: Thursday, February 22, 2024 - 5:24 am
  • পঠিত হয়েছে: 178 বার

টাচ নিউজ ডেস্ক: সিদ্ধিরগঞ্জের আল-হেরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান ও আল-হেরা’ সংশ্লিষ্ট ১০ বিসিএস ক্যাডারকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠান স্কুল মাঠে আজ বুধবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে।অনুষ্ঠানে সরকারিভাবে ভাষাসৈনিকদের তালিকা তৈরির দাবি করা হয়।অনুষ্ঠান শেষে ৩৬টি ইভেন্টে শিশুশিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের প্রবীণ অধ্যাপক ও বিআইবিএম’র সাবেক মহাপরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. আবদুল জলিল চৌধুরী।প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মো. শরীফ মাহমুদ অপু।বক্তব্য রাখেন আল-হেরার প্রাক্তন ছাত্র বিসিএস (স্বাস্থ্য) ডা. নূর মোহাম্মদ সুমন। অনুষ্ঠানে জনপ্রিয় অভিনেতা রাশেদুল আউয়াল শাওন ও বাংলাদেশ টেলিভিশন-বেতারের শিল্পী প্রিন্সিপাল ফরহাদ আজিজকে সম্মাননা প্রধান করা হয়।সভাপতিত্ব করেন আনন্দলোক উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুর রহিম মেম্বার ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন আল-হেরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক মোহাম্মদ আবদুল অদুদ।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাসস’র বিশেষ প্রতিনিধি ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান’র কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. সাজ্জাদ হোসেন, আল-হেরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের উপদেষ্টা মোবারক হোসেন খান, বি ট্রান্সপোর্টের চেয়ারম্যান মো. বিল্লাল হোসেন. নাসিক ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তিমালিকানাধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক আবুল, আল-হেরা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের উপদেষ্টা বীর মক্তিযোদ্ধা মীর মো. জাকারিয়া, ক্যাপ্টেন অব. মাসুদ আহম্মেদ, হাজী আনসার আলী, ফরহাদ হোসেন ভুইয়া. স্কুলের অভিভাবক আনোয়ার আশরাফ, আমির হোসেন, আবদুর রহমান, মোফাজ্জল হোসেন, শাহজাহান সানী, জামাল হোসেন, ফরিদ উদ্দিন, মো. শাহজালাল ও রাজু আহমদ।উপস্থাপনা করেন শিফট ইনচার্জ শাম্মী আক্তার।
অনুষ্ঠানে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন পারফরমেন্স, ব্রিটিশ কাউন্সিলের পুরস্কার লাভ, ১৭টি বৃত্তিলাভ, প্রতিষ্ঠানের সাবেক শিক্ষক-শিক্ষার্থীর বিসিএস ক্যাডার হওয়ার সাফল্যে অভিভূত হয়ে বক্তাগণ বলেন, এধরনের প্রতিষ্ঠান আমাদের সমাজ ও দেশের জন্য খুব জরুরি।শিশুদেরকে তাদের সৃজনশীল বিকাশে উদ্বুদ্ধকরণে একটি মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম করে দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধান আলোচক মো. শরীফ মাহমুদ অপু।