ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ১২:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

ঈদযাত্রায় শৃঙ্খলার সংকট হলেই যানজট হবে: সেতুমন্ত্রী

  • আপডেট: Thursday, April 13, 2023 - 11:35 am
  • পঠিত হয়েছে: 77 বার

টাচনিউজ ডেস্ক: শৃঙ্খলার সংকট হলেই ঈদযাত্রায় মহাসড়কে যানজট হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) ময়মনসিংহে কেওয়াটখালি সেতু নির্মাণ প্রকল্পের পরামর্শক সেবা সংক্রান্ত চুক্তি অনুষ্ঠানে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।
প্রতি বছর ঈদের সময় মহাসড়কে যানজট ভয়াবহ আকার ধারণ করে। এতে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয় ঘরমুখো মানুষকে। বিশেষ করে উত্তরের পথে যারা যান তাদের ভোগান্তির মাত্রাটা বেশি থাকে। আসন্ন ঈদুল ফিতরেও যানজট হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
এবারের ঈদযাত্রা কতটা সহনীয় হবে জানতে চাওয়া হয় মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কাছে। জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রকল্প থেকে ১১০০ কোটি টাকা সাশ্রয় হয়েছে। সেনাবাহিনীর আরও কয়েকটি প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত সময়ের আগে হয়েছে। ঈদ অবশ্যই একটা চ্যালেঞ্জ, এটা হয়ে যায় রাস্তার জন্য। রাস্তা এখন সমতল থেকে সীমান্ত পর্যন্ত ছড়িয়ে গেছে সারা বাংলাদেশে। এতো রোড নেটওয়ার্ক, এখানে আমাদের দেশে কখনও এতো বিস্তৃত হয়নি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অনেক রোড হয়েছে, ব্রিজ হয়েছে, একদিনে ১০০ রাস্তাও আমরা উদ্বোধন করেছি। রাস্তায় কোনো সংকট নেই, রাস্তা যানজটের কারণ হবে না। যানজটের কারণ হবে ডিসিপ্লিন। শৃঙ্খলার সংকট হলেই যানজট হবে। আমি একটু জটলা দেখলে রং সাইডে যাবো, তাহলে তো যানজট হবে। এ ধরনের অবস্থা হয়। অনেক সময় ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালাচ্ছে, চলতে চলতে গাড়ি রাস্তায় থেমে গেছে। সেটা সরাতে সরাতে ১৫ মিনিট লাগলে কতবড় যানজট হবে সেটা তো বোঝা যায়। আমি নিজে প্রত্যক্ষদর্শী। আমি বার বার ভিজিট করেছি। আমি মানুষের কষ্ট দেখেছি। রাত দুইটায়ও দুর্ভোগ আমরা দেখেছি। অন্যবার আমাদের একটা প্রবলেম ছিলো গাজীপুর। এবার গাজীপুর একেবারেই দুর্ভোগশূন্য হবে মনে করি না, তবে সেখানে অন্যান্যবারের তুলনায় এবার দুর্ভোগ সহনীয় পর্যায়ে থাকবে।’

যানজট নিরসনে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। দিস ইজ অ্যা চ্যালেঞ্জ। এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং। নির্ধারিত সময়ের আগে আমাদের অনেক কাজ হয়ে গেছে। কাঁচপুর সেকেন্ড ব্রিজ, মেঘনা, গোমতি নির্ধারিত সময়ের আগে হয়ে গেছে।’