ঢাকা | মে ২৬, ২০২৪ - ১১:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

চিকিৎসককে লাঞ্ছিত করায় বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলামের প্রতিবাদ

  • আপডেট: Saturday, March 4, 2023 - 1:41 pm
  • পঠিত হয়েছে: 83 বার

টাচ নিউজ ডেস্ক:খুলনার শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডা. নিশাত আব্দুল্লাহকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা ও পরবর্তীতে মামলা দায়েরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি’র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা.রফিকুল ইসলাম।
চিকিৎসকদের টানা কর্মবিরতিতে অচল খুলনার স্বাস্থ্যসেবা
ডাক্তারদের কর্মবিরতি অব্যাহত, খুলনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি দল
শনিবার বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. তাইফুল ইসলাম টিপু’র স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তিনি এ নিন্দা জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ডা. আব্দুল্লাহ খুলনার শেখ পাড়ার হক নার্সিং হোমে রোগীর অপারেশন করেছিলেন। এমন সময় পূর্বে অপারেশন করা অন্য রোগীর অভিভাবক ও পুলিশের জনৈক সাব ইন্সপেক্টর অপারেশনে জটিলতার অভিযোগ তুলে আরো কয়েকজন সহযোগীসহ অপারেশন থিয়েটারে প্রবেশ করে। তারা চিকিৎসককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে ও ক্লিনিকে ধ্বংসযজ্ঞ চালায়। পরবর্তীতে ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য ডা. নিশাত আব্দুল্লাহ’র বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে।

বিবৃতিতে ডা. রফিকুল ইসলাম বলেন, একজন উচ্চ শিক্ষিত সম্মানিত ডাক্তারের সম্মানহানির উদ্দেশ্যপ্রণোদিত চেষ্টা রাষ্ট্রযন্ত্রের ঠুনকো অবস্থার বহিঃপ্রকাশ। গুটিকয়েক বিপথগামী প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী কর্তৃক অন্যায়ভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা এবং অন্যায় কাজকে উৎসাহিত করা কোনভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। এধরনের ঘৃণ্য কার্যকলাপ কঠোরভাবে দমন করা আবশ্যক।

তিনি বলেন, সরকার জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে চূড়ান্তভাবে ব্যর্থ। তারই ধারাবাহিকতায় সমাজে প্রতিষ্ঠিত একজন সম্মানিত ব্যক্তিকেও বলি করতে দ্বিধাবোধ করেনি রাষ্ট্রের উদ্ধত-বেপরোয়া কর্মচারী। ডা. নিশাত আব্দুল্লাহ’র বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছি। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।