টাচ নিউজ ডেস্ক: রসুন প্রতিটি রান্নাঘরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। প্রায় প্রতিটি খাবারেই রসুনের উপস্থিতি থাকে। এটির তীব্র সুগন্ধ রয়েছে যা খাবারের স্বাদ বহুগুণে বাড়িয়ে তোলে। এছাড়াও রসুনের রয়েছে বহু পুষ্টিগুণ। রসুন যুগ যুগ ধরে চিকিৎসা উপাদান হিসেবেও ব্যবহার হয়ে আসছে। এটি কাঁচা, ভাজা, কিংবা যেভাবেই খান না কেন সবকিছুতেই বহুবিধ স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।

রসুনের স্বাস্থ্য উপকারিতা:
রসুনকে ওষুধি গুণাবলির পাওয়ার হাউজ বলা হয়। ইউএসডিএ অনুসারে, প্রতি ১০০ গ্রাম রসুনে ১৫০ ক্যালরি, ৩৩ গ্রাম কার্বস এবং ৬.৩৬ গ্রাম প্রোটিন থাকে। এটি ভিটামিন, খনিজ এবং অন্যান্য বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যকর পুষ্টি দ্বারা সমৃদ্ধ। আসুন রসুনের স্বাস্থ্য সুবিধাগুলো জেনে নেই-

ঠান্ডা এবং ফ্লু প্রতিরোধ করে:
রসুনে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের বিভিন্ন বিষক্রিয়া বাইরে বের করে দেয় এবং আমাদের ভিতর থেকে পুষ্টি জোগায়। এটি আমাদের শীত, ফ্লু এবং বিভিন্ন মৌসুমী রোগ থেকে রক্ষা করে।

হার্ট ভালো রাখে:
রসুনে অ্যালিসিন রয়েছে যা কোলেস্টেরল কমাতে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। এছাড়াও হৃদরোগের ঝুঁকি রোধ করে।

ত্বক ভালো রাখে:
রসুন রক্তকে বিশুদ্ধ করতে সহায়তা করে। যা ব্রণ এবং ত্বকের অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ করে ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। এটি ত্বককে ভেতর থেকে গ্লো করতে সহায়তা করে।

যদিও, রসুনকে একাধিক উপায়ে ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। তবে পুষ্টিবিদদের মতে, কাঁচা রসুন খেলে ওষুধি গুণাগুণ বেশি পাওয়া যায়। তবে এর তীব্র গন্ধের কারণে অনেকেই কাঁচা রসুন খাওয়া এড়িয়ে চলে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে