ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২৪ - ২:৩৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

চাটখিল ক্রিকেট একাডেমির ৩ জন খেলোয়াড় জেলা অনূর্ধ্ব-১৪ দলে খেলার অর্জন করেছে

  • আপডেট: Friday, December 22, 2023 - 2:33 pm
  • পঠিত হয়েছে: 74 বার

আনিছ আহম্মদ হানিফ,চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক আয়োজিত নোয়াখালী জেলা বয়স ভিত্তিক অনূর্ধ্ব ১৪ দলে জায়গা করে নিয়েছেন চাটখিল উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার অধীনে থাকা চাটখিল ক্রিকেট একাডেমির ৩ জন খেলোয়াড় জেলা অনূর্ধ্ব-১৪ দলে খেলার অর্জন করেছে।
মঙ্গলবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা মোস্তফা স্বর্নার সাথে দোয়া কামনা সাক্ষাৎ করে অনূর্ধ্ব-১৪ দলে সুযোগ পাওয়া খেলোয়াড়গণ।
অনূর্ধ্ব ১৪ দলে সুযোগ পাওয়া খেলোয়াড়গণ হলো: শাহ আল ইয়ামিন (১৩) উপজেলার বদলকোট ইউনিয়নের রেজ্জাকপুর গ্রামের ইউসুফ রাসেল ও সায়মা সুলতানা মিলি দম্পতির সন্তান।
খিজির আহমেদ হা-মীম (১৪)নোয়াখলা ইউনিয়নের ঘাষিপুর গ্রামের তোফায়েল আহমেদ রুবেল ও রাশেদা আক্তার দম্পতির সন্তান।
অনন্য সূত্রধর (১৪) শাহাপুর ইউনিয়নের সোমপাড়া গ্রামের জয়দেব সূত্রধর ও কাকলি সূত্রধর দম্পতির সন্তান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্বর্ণা বলেন আমার বিশ্বাস ইয়ামিন, হা-মীম, অনন্য এরা একদিন জাতীয় ক্রিকেট টিমে খেলবে ইনশাআল্লাহ। আমি তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।
তিনি আরো বলেন আমার চাওয়া একটি প্রতিভা যেন ঝরে না পড়ে।
সচেতন অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি সন্তানদের প্রতি সচেতন হোন। আপনাদের সন্তানকে পড়া লেখার পাশাপাশি খেলা ধুলায় মনোনিবেশ করান। আপনার সন্তান স্কুল কলেজ মাদ্রাসা থেকে আসার পর অবসর সময়ে কাদের সাথে চলাফেরা করে তার খবরাখবর নিন।

চাটখিল ক্রিকেট একাডেমীর প্রশিক্ষক ইয়াসিন পিয়াস বলেন “প্রতিভা থাকলে পথের দেখা মিলবেই” উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার অধীনে ২৯ শে মার্চ ২০১২সালে চাটখিল ক্রিকেট একাডেমীর যাত্রা শুরু করে হাঁটি হাঁটি পা করে আজকের অবস্থানে এসেছে।
ক্রিকেট দুনিয়ায় কঠিন চ্যালেঞ্জে জয়ী হওয়া প্রাথমিক পাঠ দেওয়া কাজটি করে আসতেছি আজকে প্রায় ১১ বছর। এই একাডেমিতে সময়ের সঙ্গে বেড়েছে খেলোয়ারদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে সুযোগ সুবিধার পরিধি।
২০২৩ সালে চাটখিল ক্রিকেট একাডেমীতে ৪০ জন মত ছাত্রকে প্রশিক্ষণার্থী রয়েছে।
তিনি আরো বলেন বয়স ভিত্তিক গ্রুপে ভাগ করে সাপ্তাহে চার দিন শুক্রবার-শনিবার-রবিবার- সোমবার অনূর্ধ্ব-৮,১০,১২,১৪,১৬,১৮ এবং সিনিয়ার লেভেলের প্রশিক্ষনার্থীদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছি। তারা জেলা, বিভাগ পর্যায়ে ক্রিকেট একাডেমীর সুনাম ছড়িয়ে দিচ্ছে।
পিয়াস বলেন ২০১২ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত চাটখিল ক্রিকেট একাডেমীর ৩০জন প্রশিক্ষনার্থী খেলোয়াড় নোয়াখালি জেলা পর্যায়ে খেলেছে।
প্রতিবছর বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) তে নোয়াখালী জেলা দলে ঢাকা লীগে আমাদের চাটখিল একাডেমীর প্রশিক্ষনার্থীরা খেলে থাকে আমি তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ প্রত্যাশা করছি।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উপজেলা পর্যায়ে ক্রিকেট একাডেমী গুলোর আন্তরিকতা ও ভালবাসা এবং সু-দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।