ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২৪ - ১:৫৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

চাটখিলে ৭ বছরের শিশুর কন্যার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার

  • আপডেট: Monday, November 27, 2023 - 7:36 am
  • পঠিত হয়েছে: 79 বার

আনিছ আহম্মদ হানিফ,চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধিঃ
দুপুরের পর থেকে অন্যান্য বাচ্চাদের সাথে খেলা করতে গিয়ে নিখোঁজ কন্যা শিশুর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে চাটখিল থানা পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে নোয়াখালীর জেলার চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদ পুর ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ড জষোড়া গ্রামের সালামত পাটোয়ারী বাড়ীর মোঃ ফারুক হোসেনের কন্যা ফিহা আকতার (৭)।
২৬ নভেম্বর (রবিবার) রাত ১০ টার দিকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শিশুটিকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তবে তাৎক্ষণিক পুলিশ এ হত্যার কোনো কারণ জানাতে পারেনি। নিহত ফিহা আকতার স্থানীয় একটি নুরানি মাদরাসার প্রথম জামাতের ছাত্রী।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) সকালের দিকে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। গতকাল রোববার রাত ১০টার দিকে উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের জষোড়া গ্রামের মোল্লা বাড়ি সংলগ্ন একটি পুকুর পাড় থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের মামা মো.ফাহাদ বলেন, ফিহা কে রোববার দুপুরের দিকে তার বাবাকে বাড়িতে না দেখে খোঁজাখুজি করেন। ঐ সময় তাদের বাড়ির পাশে একটি ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন চলছিল। ফিহা সেখানে গিয়ে আশে পাশের বাড়ীর ছোট ছোট বাচ্চাদের সাথে খেলাধুলা করে। পরবর্তীতে দুপুর ২টার পর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। এরপর তার বাবা বাড়িতে এসে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে তাকে খুঁজতে শুরু করেন। খোঁজা খুজির একপর্যায়ে এক ব্যক্তি জষোড়া গ্রামের মোল্লা বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড়ে সন্ধ্যা ৮টার দিকে ফিহার রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। তাদের বাড়িতে খবর দেয় থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক বলেন, প্রাথমিক ভাবে এটাকে হত্যা মনে হচ্ছে। মরদেহ উদ্ধার করে থানায় এনে রাখা হয়েছে। সোমবার সকালের দিকে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে।ভিকটিমের মাথার এক পাশে ফোলা জখমের চিহৃ রয়েছে বলে জানান। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

খবর পেয়ে নোয়াখালী জেলার পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।