ঢাকা | জুন ২০, ২০২৪ - ১২:৩৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

চাটখিলে গৃহবধুর হত্যা মামলায় ৩ আসমী জেল হাজতে

  • আপডেট: Saturday, November 25, 2023 - 11:12 am
  • পঠিত হয়েছে: 150 বার

আনিছ আহম্মদ হানিফ, চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধি:
চাটখিলে বিয়ের ৯ মাসের মাথায় কিশোরী গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তিন জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) জেলা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক নুরজাহান বেগম তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগের মামলায় এই তিন জনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

জেল হাজতে প্রেরণকৃত তিনজন হচ্ছেন নিহত গৃহবধূর শাশুড়ি রহিমা বেগম (৪৫), ননদ ফারহানা আক্তার (২৮) ও ননদের জামাই মজিবুর রহমান ফরিদ (৪০)। এরা তিন জনই ঘটনার সময় নিহতের সাথে একই বসতঘরে অবস্থান করছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের সিংবাহুড়া গ্রামে স্বামীর বাড়ি থেকে অর্পিতা নামের এই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার দিন বিকেলেই নিহতের বাবা বেল্লাল হোসেন বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। নিহত ফাতেমা মরিয়ম অর্পিতার (১৭) পরিবারের দাবী এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। তবে তার স্বামী রইসুল ইসলাম রুবেলের পরিবারের দাবী বাড়ির বাথরুমে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মাহত্যা করেছে এই গৃহবধূ। তবে স্থানীয়রা এই নববধূর সাথে স্বামীর পরিবারের পারিবারিক কলহ ছিলে বলেও অভিযোগ করেন।

নিহত ফাতেমা আক্তার মরিয়ম অর্পিতা চাটখিল পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের শাহ নিয়ামতপুর গ্রামের সর্দার বাড়ির বেল্লাল হোসেনের কনিষ্ঠ মেয়ে। নিহতের স্বামী উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সিংবাহুড়া গ্রামের আনোয়ার উল্লাহ চেরাং বাড়ির ফারুক মিয়ার ছেলে ইতালি প্রবাসী রইসুল ইসলাম রুবেল।

চাটখিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ইমদাদুল হক দৈনিক বিভন্ন গণ মাধ্যম কর্মীদের কে বলেন, ‘মামলায় আটককৃত তিনজনকে আদালতের মধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আমরা ঘটনার সকল দিক খতিয়ে দেখছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবো।’