ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২৪ - ৩:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিলের অভিষেক অনুষ্ঠিত

  • আপডেট: Thursday, October 26, 2023 - 7:29 am
  • পঠিত হয়েছে: 197 বার

টাচ নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ  ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিল ( বিসিআরসি)’র নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত হয় | গতকাল সেগুনবাগিচার কেন্দ্রীয় কচিকাঁচা মিলনায়তনে সংগঠনের সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক আলী আশরাফ আখন্দের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মশিউর রেজা চৌধুরীর তত্বাবধানে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ নিজামুল হক নাসিম। অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিলের প্রধান উপদেষ্টা, সাবেক তথ্য সচিব ও বিটিআরসির প্রথম চেয়ারম্যান সৈয়দ মারগুব মোরশেদ। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের চেয়ারম্যান হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট অভিনেতা ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব পীরাদা শহীদুল হারুন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক নেতা আবু জাফর সূর্য,এফবিসিসিআই সদস্য ও এস এ গ্রুপের কো-অর্ডিনেটর হাসান মঞ্জুর, দৈনিক রূপবানী সম্পাদক ফারুক আহমেদ, দৈনিক দেশের পত্র সম্পাদক রুফায়দাহ পন্নী, নিউজ এডিটর গিল্ডসের সভাপতি বাদল চৌধুরী, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি( বাচসাস) সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল আলম মিলন ও অগ্রনী বার্তার মোঃ জাহাঙ্গীর কবির প্রমূখ ব্যক্তিবর্গ। নবনির্বাচিত বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিল ( বিসিআরসি)’ র ৩৫ সদস্যের শপথ বাক্য পাঠ করান প্রধান উপদেষ্টা সৈয়দ মার্গুব মোরশেদ। তিনি তার বক্তৃতায় বলেন, এখন দিন পাল্টে গেছে এখন আর পত্রিকার জন্য বসে থাকতে হয় না। সবকিছুই ডিজিটালাইজেশন হয়ে গেছে। মোবাইলের মাধ্যমে সকল আপডেট পাওয়া যায়। সুতরাং এই সময়ে সাংবাদিকদের ডিজিটালাইজড হতে হবে৷ তানা হলে পেছনেই পড়ে থাকতে হবে। সেজন্য সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণের ব্যাপারে তিনি গুরুত্বারোপ করেন। প্রধান অতিথি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ নিজামুল হক নাসিম বলেন, ডাক্তাররা যেমন তাদের নামের পূর্বে ডাক্তার লাগাতে পারেন, আইনজীবীরা যেমন তাদের নামের আগে এডভোকেট লাগাতে পারেন, এমনি করে সাংবাদিকরা তাদের নামের পূর্বে সাংবাদিক লাগাতে পারবেন। সেজন্য প্রেস কাউন্সিল সাংবাদিকদের নিবন্ধনশুরু করেছে । তবে দেশের বিভিন্ন পত্রপত্রিকার সম্পাদ ও বিশিষ্ট সাংবাদিকরা এ নিবন্ধনে সহযোগিতা করছেন না বলে তিনি আক্ষেপ প্রকাশ করেন।সাংবাদিকদের প্রশিক্ষিত করার জন্য প্রেস কাউন্সিল পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। তারা বিভিন্ন রকম প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করে যাচ্ছেন বলে তিনি জানান । কাউন্সিলের সকল সাংবাদিকদের গলায় তিনি আইডি কার্ড পরিয়ে দেন। অর্থ মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব ও বিশিষ্ট অভিনেতা পীরজাদা শহিদুল হারুন তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকদেরও প্রশিক্ষণ নিতে হবে সংবাদ পরিবেশন বিষয়ে। একজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিউজ করে দিলে হবে না তারো বক্তব্য থাকতে হবে। তবে নিউজটি অথেন্টিক হবে। সাংবাদিক নেতা আবু জাফর সূর্য তার বক্তব্যে বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকদের রুটি রুজির বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছি। কোন সংবাদ পত্রের মালিকপক্ষ যদি সাংবাদিকদের সাথে খারাপ আচরণ করে,তাদের বেতন ভাতা প্রদানে গরিমসি করে আমি তার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে সব সময় বদ্ধপরিকর। অতীত ও বহু ওয়েজ বোর্ড নিয়ে বহু পত্রপত্রিকার সম্পাদকের সাথে আমার বিরোধ হয়েছে। তাতে আমার কোন আসে যায় না, আমি সাংবাদিকদের সাথে আছি এবং থাকবো। ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিল এগিয়ে যাবে তার নিজস্ব গতিতে। আমি তাদের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করছি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও অতিথিবৃন্দ বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স কাউন্সিল ( বিসিআরসি ))’ র সাফল্য কামনা করেন ও নিজস্ব গতিতে এগিয়ে যাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে দেশ বরেণ্য শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়।অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন মনজুর হোসেন ইশা ও জেসমিন বন্যা।