টাচ নিউজ ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ২৬ দিনের শিশু সন্তান রেখে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তাহমিনা আক্তার ডলি (২৯) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। তাহমিনা আক্তার ডলির দুই ছেলের মধ্যে ছোট ছেলের বয়স ২৬ দিন

শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকার ডিএনসিসি হাসপাতলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুলিকুন্ডা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উম্মে সালমা।

তাহমিনা আক্তার ডলি সদর ইউনিয়নরে মো. খোরশেদ আলমের মেয়ে। তার স্বামী মো. মশিউর রহমান নাসিরনগর কৃষি ব্যাংকের সদর শাখায় সিনিয়র কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি হাসপাতালে সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ছেলে সন্তানের জন্ম দেন তাহমিনা আক্তার। এরপর ১৩ আগস্ট তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট বাড়ায় করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়। রিপোর্টে করোনাভাইরাস পজিটিভি আসে। পরে তাকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি স্ট্রোক করেন। পরে শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে