টাচ নিউজ ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণের হার কমে আসায় সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচারকাজ শুরু হয়েছে।

রবিবার (৬ মার্চ) সকাল ৯টার পর শুরু হয় আপিল বিভাগে বিচার কাজ। এ দিন হাইকোর্ট বিভাগেও সরাসরি বিচার কাজ শুরু হয়। ইতোমধ্যে আইনজীবীদের উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে উঠেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত

এদিকে আগামী ১৫ ও ১৬ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। এ উপলক্ষে প্রার্থীদের প্রচারণাও সকাল থেকে শুরু হয়েছে। সরেজমিনে দেখা যায়, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের সব প্রবেশ মুখে উৎসব মুখর পরিবেশে প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা ভোট চেয়ে স্লোগান দিচ্ছেন এবং তাদের প্রচারপত্র বিলি করছেন।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণের সময় ভার্চুয়ালি এবং ক্ষেত্র বিশেষে শারীরিক উপস্থিতিতে আদালতের কার্যক্রম চলে আসছিল। এরপর গত বছরের ২৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে।

এতে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি জ্যেষ্ঠ বিচারপতিদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে ০১ ডিসেম্বর থেকে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

সেই নির্দেশনা অনুযায়ী গত ০১ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগে শারীরিক উপস্থিতিতে কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ বেড়ে গেলে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ফের ভার্চুয়ালি বিচার কাজ শুরু করেছিলেন সুপ্রিম কোর্ট।

বর্তমানে করোনার সংক্রমণ নিম্নমুখী হওয়ায় ভার্চুয়ালি বিচার কাজ থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেন সুপ্রিম কোর্ট। গত ৩ মার্চ এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় আজ ৬ মার্চ থেকে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কাজ চলবে। একই দিনে গাউন পরা নিয়ে আরেকটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে