টাচ নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের গোলাপগঞ্জে ফুটবল খেলা নিয়ে ঝগড়ার জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে এক যুবক খুন হয়েছেন।

শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নুরুপাড়া রঙাই বিছরাগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আরও তিনজন আহত হন।

নিহত তারিক আহমদ (২৫) গোলাপগঞ্জ পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের রণকেলী নয়াগ্রাম এলাকার তখলিছ আলীর ছেলে। এ ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা হলেন- একই এলাকার তছন আলীর ছেলে আবু সুফিয়ান (২৭), তার ছোট ভাই জায়েদ আহমদ পারভেজ (১৭) ও একই এলাকার ফয়ছুল আলীর ছেলে শাহানুর আহমদ (৩০)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকালে রণকেলী নয়াগ্রামে ফুটবল খেলা দেখতে যান তারিক আহমদ। রণকেলী রাঙাই বিছরা ও রণকেলী নয়াগ্রামের দলের মধ্যে খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলার একপর্যায়ে তারিক আহমদ নিজ গ্রামের খেলোয়াড়দের সুন্দর করে খেলার জন্য বলেন। এ নিয়ে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় গোলাম কিবরিয়ার সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় স্থানীয় ব্যক্তিরা বিষয়টি সমাধান করেন। খেলায় রণকেলী নয়াগ্রাম ফুটবল দল জয়ী হলে খেলা শেষ হওয়ার পরপরই বিপক্ষ দলের কয়েকজন সমর্থক ধারাল অস্ত্র নিয়ে হামলা চালান।

একপর্যায়ে খেলার রেফারি আবু সুফিয়ানের ওপর রণকেলী রাঙাই বিছরা গ্রামের লোকজন হামলা চালান। হামলা ঠেকানোর চেষ্টা করতে গিয়ে ছুরিকাহত হন তারিক আহমদ, পারভেজ আহমদ, জায়েদ আহমদ ও শাহনুর আহমদ। পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা গুরুতর আহত চারজনকে সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৮টার দিকে তারিক আহমদ মারা যান।

এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফয়জুল করিম বলেন, খেলাকে কেন্দ্র করে এক যুবক নিহত হয়েছেন বলে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে