টাচ নিউজ ডেস্কঃ উপাচার্যের বাসভবনের সামনে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে আরপিত অবরোধসহ সব ধরনের অবরোধ প্রত্যাহার করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। তবে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) রাত ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে এ কথা জানান রোমিও নিকোলাস রোজারিও ও মোহাইমিনুল বাশার রাজ।

এ সময় তারা বলেন, বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক, উপাচার্যের বাসভবন, অ্যাকাডেমিক ভবন, প্রশাসনিক ভবনসহ সব ধরনের অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে অনশনরত থাকার পর মুহম্মদ জাফর ইকবাল স্যার এবং ইয়াসমিন হক ম্যামের অনুরোধে শিক্ষার্থীরা অনশন থেকে সরে আসে। তবে উপাচার্যের পদত্যাগের আগ পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

তারা আরও বলেন, সকালে শিক্ষার্থীদের তরফ থেকে অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ৫টি দাবির কথা বলা হয়। আমাদের ৫ দাবির মধ্যে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে অর্থদানের অভিযোগে গ্রেফতার ৫ সাবেক শাবি শিক্ষার্থীর জামিন মঞ্জুর হয়েছে। অজ্ঞাতনামা শিক্ষার্থীদের নামে করা মামলা প্রত্যাহার হয়েছে। অনশনকারী শিক্ষার্থীদের চিকিৎসা খরচ মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। গত ১৬ জানুয়ারি উপাচার্যের মদদে সংঘটিত পুলিশি হামলায় গুরুতর আহত শিক্ষার্থীর চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, তাদের মূল দাবি উপাচার্যকে অপসারণ। এই দাবির সঙ্গে অধ্যাপক জাফর ইকবাল ও ইয়াসমিন হক একাত্মতা জানিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে