টাচ নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশ সচিবালয়ে কাজকর্ম নির্বিঘ্ন করতে চারটি নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। এ চারটি নির্দেশনা জানিয়ে দিয়ে গত ২৪ জানুয়ারি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সিনিয়র সচিব/সচিবদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব মো. ফিরোজ উদ্দিন খলিফা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশ সচিবালয় দেশের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক কেন্দ্র এবং একটি উচ্চ সংরক্ষিত গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। মাত্র ১৭ দশমিক ৫৩ একর জমিতে ১১টি বড়-ছোট ভবন ও ৬টি ক্যান্টিন রয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, কর্মকর্তা/কর্মচারী, বিভিন্ন সভায় আগত সদসস্য ও দর্শনার্থীসহ প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার মানুষ প্রতিদিন সচিবালয়ে গমনাগমন এবং ৪ থেকে ৬ হাজার যানবাহন সচিবালয়ে প্রবেশ করে। তাই, সচিবালয়ে কাজকর্ম নির্বিঘ্ন করতে চারটি নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

নির্দেশনাগুলো হলো:
১. সচিবালয়ের সম্মুখভাগসহ চারপাশে এবং ভেতরে বিভিন্ন ভবনের দেয়ালে কোনরূপ তোরণ/স্ট্যান্ড, ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন, লিফলেট, স্থাপন/সাটানো/ঝুলানো যাবে না।

২. সচিবালয়ে কর্মরত সব উপসচিব এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগের মাইক্রোবাস মুক্তাঙ্গন/নির্ধারিত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পার্কিংয়ে অবস্থান করতে হবে। কোনোমতেই সচিবালয়ে অবস্থান করবে না।

৩. প্রটেকশনের গাড়ি কোনোক্রমেই সচিবালয়ে প্রবেশ করবে না। সচিবালয়ের বাইরে পূর্বপাশে পার্কিং করবে। স্টিকারবিহীন কোনো গাড়ি সচিবালয়ে প্রবেশ করবে না।

৪. সচিবালয়ের সম্মুখভাগ অর্থাৎ আব্দুল গণি সড়কে কোনো রিকশা/ভ্যান চলাচল করবে না।

এমতাবস্থায়, সংশ্লিষ্ট সবাইকে উল্লিখিত নির্দেশনাগুলো পালনের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে চিঠিতে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে