পারভেজ উজ্জল, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ ১৯৭২ সালে ১০ জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু স্বদেশে ঢুকেই, দেশ সবুজের ভুমিতে রুপান্তরিত করতে গাছের বিকল্প নেই, এই মর্মে রেসকোর্স অর্থাৎ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে, ঘোড়দৌর চিরতরে বন্ধের লক্ষ্যে বৃক্ষ রোপণ করেন, কথা গুলো বললেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি শাহিদ মাহমুদ।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে,১৫ আগষ্ট শনিবার  নীলফামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ১১টায় জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি কর্মকর্তাকর্মচারী সমবায় সমিতি লিমিটেডের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অত্র সমিতির সভাপতি আল ফারুক পারভেজ উজ্জ্বলের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি আব্দুর রশিদের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, বিশেষ অতিথি স্কুল কমিটির সভাপতি দেওয়ান সেলিম আহমেদ, সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান, আল আমিন, একরামুল হক লাবু, স্বপ্না আকতার।
দেওয়ান সেলিম আহমেদ বলেন, দেশ সবুজের লীলাভূমিতে পরিনত করতে, বঙ্গবন্ধু বৃক্ষরোপণের কর্মসূচি বাস্তবায়নে, দেশ সবুজে পরিনত হয়। দৈনিক নীল কথার ষ্টাফ রিপোর্টার, মিজানুর রহমান মিজান বলেন, বঙ্গবন্ধু বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে পরিবেশের ভারসাম্য ফিরে এসেছিলো, সারাদেশে। আর সেই গাছ ৯১ সালে, খুনিদের চক্র সাবার করে দেওয়ার কারণে, পরিবেশের চরম ক্ষতির মুখে পড়ে, এমন কি জীব বৈচিত্র্য হুমকির মুখে ধাবিত করে, জোট সরকারের চোর লুটেরাগণ। পুণরায় আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসে বৃক্ষরোপণে হাত দেয়, বঙ্গবন্ধুর জৈষ্ঠ্যকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। এবং সে কারণেই ধীরে ধীরে ফিরে এসেছে ষড়ঋতু,তাই এ সরকারের বিকল্প কিছু নাই। সবশেষে  অতিথিবৃন্দ স্কুল মাঠে বৃক্ষ রোপণ করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে