টাচ নিউজ ডেস্কঃ ডিভোর্স না হওয়া সত্বেও অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার মামলায় ক্রিকেটার নাসির হোসাইন ও তার স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেছেন আদালত। এর ফলে আসামিদের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো। তবে নাসিরের শাশুড়ি সুমি আক্তারকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের আদালত নাসির ও তামিমার অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে চার্জগঠনের আদেশ দেন। একই সাথে আগামী ১০ মার্চ সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে গত ২৪ জানুয়ারি চার্জের বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ওই দিন তিন আসামির অব্যাহতি চেয়ে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী কাজী নজিব উল্যাহ হিরু। বাদীপক্ষে ইশরাত হাসান চার্জগঠনের প্রার্থনা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত ৯ ফেব্রুয়ারি চার্জের বিষয়ে আদেশের জন্য রাখেন।

এদিন, তারা আদালতে উপস্থিত হন। নিজেদের নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচার প্রার্থনা করেন তারা। গত বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি তাম্মির স্বামী রাকিব হাসান বাদী হয়ে মামলা করেন।

মামলায় আগের বিয়ে গোপন থাকা অবস্থায় অন্যত্র বিয়ে, অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়ায় মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলাটি তদন্ত করে গত বছর ৩০ সেপ্টেম্বর পিবিআইয়ের পুলিশ পরিদর্শক শেখ মো. মিজানুর রহমান তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন। পরে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন মামলার বাদী ও তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব হাসানের আইনজীবী ইশরাত হাসান। শুনানি শেষে আদালত নাসিরসহ তিনজনকে ৩১ অক্টোবর আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন। ওই দিন তারা আদালতে হাজিরা দেন এবং জামিন নেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে