টাচ নিউজ ডেস্কঃ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদের বাসভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করে দিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১২টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করে দেয়া হয়। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী উমর ফারুক গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘উপাচার্যের বাসভবনে বিদ্যুতের যে লাইনটি গিয়েছে, সেই একই লাইন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০/৩৫ জন কর্মচারীর বাসায়ও বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। উপাচার্য ভবনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় ওই কর্মচারীরাও বিদ্যুতহীন হয়ে পড়েছিলেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাসায় রোগীরা সমস্যায় পড়েছেন জানিয়ে কর্মচারীরা আমাদের কাছে বিদ্যুৎ সংযোগ সচল করে দেওয়ার অনুরোধ করেন। তাদের অনুরোধে বিদ্যুৎ সংযোগ সচল করে দিয়েছি।’

বিদ্যুৎ সংযোগ চালুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) বিএম আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের।

এর আগে রোববার (২৩ জানুয়ারি) রাত পৌনে আটটার দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ওই বাসভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আমরণ অনশনে নামেন শাবিপ্রবির ২৪ শিক্ষার্থী।

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বেগম সিরাজুন্নেছা চৌধুরী হলের প্রভোস্ট প্রত্যাহারসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলনে নামেন ওই হলের ছাত্রীরা। পরে দাবি মেনে নেওয়া হবে বলে দেওয়া উপাচার্যের আশ্বাসে হলে ফেরেন তারা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি, উপাচার্য তাদের দাবি না মেনে সময়ক্ষেপণের চেষ্টা করেন। পরে সেই আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীরাও যোগ দেন। উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনাও ঘটে।

এক পর্যায়ে পুলিশ গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করলে আহত হন শিক্ষার্থীরা। যদিও পুলিশ ৩০০ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে উপাচার্যকে অপসারণের দাবিতে আমরণ অনশনে নামেন শিক্ষার্থীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে