শরীরে লাশের গন্ধ
নিধি ইসলাম

শীতল রাতের অন্ধকারে একটুখানি উষ্ণতার খোঁজে
আমার মনের দরজা খুলে জ্যামিতির জটিল অঙ্কের
উপপাদ্য এঁকে যাও আনমনা উদাসী স্বপ্নিল চোখে
জিওমেট্টি ত্রিকোণমিতির সহজ সরল সূত্রে
লণ্ডভণ্ড করে যাও নানান জটিলতর প্রশ্নবানে।
আজকে যে আর পাবে না তুমি রক্তমাংসের মানবীর অতৃপ্ত ধন্ধ
অবশিষ্ট যার রয়েছে শুধু মৃত লাশের ভোটকা গন্ধ।

আমি যে আজ বাতাবিলেবু নয়তো বুনো জংলি ফুলের মালা
আমাকে বুকে আঁকতে কি পারবে দ্রাঘিমাংশ অক্ষাংশ রেখা
সময়ের জমানো ক্লেদ ধুয়ে কাটাছেঁড়া একতাল মাংসের
অনুগল্প লিখো জীবনের প্রথম পৃষ্ঠায়।

স্বার্থের দুনিয়ায় ঘাত অভিঘাতে
নিজের রক্ত নিজেই খেয়ে যাই নিঃশব্দ চুপিসারে
মস্তিষ্কের রক্তনালী ফেটে দুচোখের পাতায় পাতায় কুয়াশার চাদরে ঢেকে
পাইনি পরিত্রাণ- লসাগু গসাগুর জটিল তত্ত্বে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে