টাচ নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেনে সামরিক অভিযান পরিচালনার জেরে যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের পশ্চিমা মিত্ররা রাশিয়ার ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করেছে। এতে রাশিয়ায় মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে গেছে, অর্থনৈতিক সঙ্কট তৈরি হয়েছে। পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে নানা নিষেধাজ্ঞার হুমকি দিয়েছে রাশিয়াও। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রাশিয়ার গ্যাস কিনতে হলে মিত্র নয় এমন দেশকে গ্যাসের দাম রুশ মুদ্রা রুবলে পরিশোধ করতে হবে।

তবে অনেক পশ্চিমা দেশই রাশিয়ার এই দাবি প্রত্যাখান করেছে। এমন দাবি প্রত্যাখান করতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন তো রীতিমতো জোট গঠন করার চেষ্টা করেছে। তবে ব্যতিক্রম হাঙ্গেরি। তারা পুতিনের এ দাবি মেনে নিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান বলেছেন, ‌‘রুবলে গ্যাস কিনতে আমরা কোনো সমস্যা দেখি না। রাশিয়া যদি বলে আমরা রুবলেই দাম পরিশোধ করবো।’

হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান পুতিনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি টানা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েই প্রকাশ্যে তিনি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সমালোচনা করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে