টাচ নিউজ ডেস্কঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছাত্রদের আবাসিক হল থেকে সাময়িকভাবে পুলিশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। এখন থেকে তারা ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ছিনতাই ও বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধে দায়িত্ব পালন করবেন৷

শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ক্যাম্পাসে চুরি, ছিনতাই ও বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধ করতে পুলিশ প্রশাসন এ উদ্যোগ নিয়েছে। তারা জানান, আবাসিক হলগুলোতে পুলিশের তেমন প্রয়োজন নেই। তবে হলগুলোতে পুলিশের প্রয়োজন পড়লে তখন ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে ক্যাম্পাসের কিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট, যেখান দিয়ে বহিরাগতদের প্রবেশের সুযোগ রয়েছে সেখানে অস্থায়ী পুলিশ বক্স করা হয়েছে। হলের পুলিশরা এখন থেকে সেখানে দায়িত্ব পালন করবেন। যাতে ক্যাম্পাসে ছিনতাইয়ের ঘটনা না ঘটে ও বহিরাগতরা প্রবেশ করতে না পারে৷ বহিরাগতদের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে।

সম্প্রতি ক্যাম্পাসে বেশ কয়েকটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া বহিরাগতদের উৎপাতে ক্যাম্পাসে মাদকের সরবরাহ বেড়েছে। মাদক গ্রহণকালে বহিরাগত আটকও করেছে প্রক্টরিয়াল বডি। এখন থেকে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বহিরাগতের প্রবেশে জিরো টলারেন্স জারি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে