টাচ নিউজ ডেস্কঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) আপত্তিকর অবস্থায় চারজন বহিরাগত প্রেমিক-প্রেমিকাকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে ক্যাম্পাস পরিদর্শনকালে তাদের আটক করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম। পরে মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন-বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌরভ চন্দ্র দাস ও মহিলা কলেজের স্বর্ণালী মহন্ত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাকিল আহমেদ ও বরেন্দ্র কলেজের রিজা।

জানা যায়, নামাজের পূর্ব মুহূর্তে বহিরাগত এসব ছেলেমেয়েরা ক্যাম্পাসে বসে অশালীন অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন ও কথাবার্তা বলছিল। এমতাবস্থায় ক্যাম্পাস পরিদর্শনে নেমে শহীদুল্লাহ কলাভবনে ও মমতাজউদ্দিন কলা ভবনের আমতলা থেকে তাদের আটক করে প্রক্টরিয়াল টিম। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল মাঠ সংলগ্ন ইবলিশ চত্বরের পুকুর পাড়ে এমন কয়েকজন বহিরাগত ছেলেমেয়েকে কঠোরভাবে সতর্ক করে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেন তারা।

আটক ছেলেমেয়েরা তাদের দোষ স্বীকার করে নিজ কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। এমনকি ক্যাম্পাসে এসে এমন কাজ আর কখনো না করার কথা জানিয়েছে মুচলেকা প্রদান করেছেন।

প্রক্টরিয়াল টিম সূত্রে জানা যায়, ক্যাম্পাসে বহিরাগত ছেলেমেয়ের আনাগোনা খুবই বেড়ে গেছে। তারা ক্যাম্পাসে এসে বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। বিশেষ করে ক্যাম্পাসের বধ্যভূমি চত্বর, ইবলিশের পুকুর পাড়, মমতাজ উদ্দিন কলাভবন, শহীদুল্লাহ কলাভবনের সামনের আমতলায় দিন ও রাতের বেলা এমন ঘটনা ঘটছে। তাদের বিভিন্ন সময় আটক করা হলে তারা মুচলেকা দিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করে চলে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, বহিরাগত শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে এসে বিভিন্ন অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নষ্ট করছে। যা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তির সাথে যায় না। তবে প্রক্টরিয়াল টিম সর্বদা সতর্ক নজরদারি অব্যাহত রেখেছে। ক্যাম্পাসের মধ্যে দিনে কিংবা রাতে এমন কোনো ধরনের কার্যক্রম ঘটলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া ক্যাম্পাসের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে প্রক্টরিয়াল টিম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে