Selection of food that is good for the health and skin, rustic wood background

টাচ নিউজ ডেস্ক
শুধু মন সুস্থ রাখা নয়, অ্যালঝাইমার্স বা স্মৃতিশক্তি কমা ও হার্টের অসুখ ঠেকাতেও এই ডায়েট খুবই ভাল। পুষ্টিবিজ্ঞানে এর নাম মাইন্ড ডায়েট। বিজ্ঞানীদের মতে, যারা নিয়মিত এই ডায়েট খান, তাদের মধ্যে অ্যালঝাইমার অসুখের আশঙ্কা প্রায় ৫৩ শতাংশ কমে। আর যারা মাঝে মাঝে খান, তাদের কমে প্রায় ৩৫ শতাংশের মতো।

স্ট্রেস–টেনশন–হতাশা কাটাতেও বেশ কাজে আসে। শুধু তা-ই নয়, বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই ডায়েট খেলে রক্তচাপও ঠিক থাকে। কোলেস্টেরল–ট্রাইগ্লিসের মাত্রা কম থাকে। তাই যাদের এই সব রোগ বা রোগের প্রবণতা আছে, তারা এই ডায়েট খেতে পারেন। ওজন কম রাখতেও এই ডায়েটের ভাল ভূমিকা আছে আর পাবেন উজ্জ্বল ত্বক। এছাড়া এই খাবার খেতে পারলে হার্টও বেশ ভাল থাকে।

কী আছে ডায়েটে

এই ডায়েট বানানো হয়েছে হার্টের বন্ধু ও রক্তচাপ কমাতে পারে এমন সব উপকারী খাবার দিয়ে। তাই যথাসম্ভব প্রাকৃতিক খাবার খেতে হয়। বাদ দিতে হয় মিষ্টি, প্রক্রিয়াজাত খাবার, অস্বাস্থ্যকর ফ্যাট ও রেডমিট। আর লবণ তথা সোডিয়াম কম আছে যা প্রেশার বাড়ায় না এমন খাবার খেতে হবে। এই ডায়েটে ১০ ধরনের স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হয়, যেমন

সবজি, সবুজ শাক, বেরি বিশেষ করে ব্লু বেরি, বাদাম, বিনস, ব্রাউন রাইস, আটা,ওটস ইত্যাদি। এছাড়া মাছ, চিকেন, ডিম, অলিভ অয়েল।

বাদ দিতে হয় ৫টি অস্বাস্থ্যকর খাবার। যেমন ভাজা ও ফাস্ট ফুড, রেড মিট, চিজ, মাখন, ফল বাদে সব রকম মিষ্টি খাবার।

খাওয়ার নিয়ম

সাদা ভাত–রুটি–সিরিয়াল অল্প অল্প করে কমান। সাদা চাল বা ময়দার বদলে ব্রাউন রাইস বা আটার রুটি খান, সাদা পাউরুটির বদলে খান ব্রাউন ব্রেড। তাও আগে দুটো খেলে এখন খাবেন একটা।

প্লেট ভরে স্যালাড খান, লেবু বা অল্প অলিভ অয়েল মিশিয়ে। বাদ দিন হাই ক্যালোরির খাবার ও সবজি খান প্রতিদিন। সম্ভব হলে অলিভ অয়েল দিয়ে সতে করে।

প্রায় প্রতিদিন কোনো না কোনো বাদাম খান। পরিমাণে ২৫ গ্রামের মতো।

সপ্তাহে ৩–৪ দিন ৩/৪ কাপ বিনস খান।

ডিম, ৭৫–১০০ গ্রাম চিকেন ও বেরি কম করে সপ্তাহে দুইবার।

সপ্তাহে অন্তত এক দিন মাছ খান। ৭৫–১০০ গ্রাম। তৈলাক্ত ও সামুদ্রিক হলে ভাল।

অস্বাস্থ্যকর খাবার সপ্তাহে এক দিনের বেশি নয়।

মাখন খান দিনে এক চামচেরও কম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে