টাচ নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেনে চলমান হামলা বন্ধ না করলে রাশিয়াকে করুণ পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ। যুদ্ধে রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়েও প্রেসিডেন্ট পুতিনকে সতর্কবার্তা দেন জার্মান চ্যান্সেলর।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১ মার্চ) রাজধানী বার্লিনে সফররত প্রতিবেশী দেশ লুক্সেমবার্গের প্রধানমন্ত্রী জাভিয়ার বেটেলের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা করেন শলজ।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের পর প্রায় প্রতিদিনই দেশটিতে বাড়ছে রুশ সৈন্য মোতায়েন। একের পর এক রুশ বাহিনীর বিধ্বংসী হামলায় ধ্বংস হচ্ছে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলো। এ অবস্থায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ ও সেনাদের ফিরিয়ে নিয়ে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ।

ওলাফ শলজ জানান, ইউক্রেন আক্রমণের মধ্য দিয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার রাজনৈতিক ইতিহাসে বড়সড় ভুল করলেন। একদিকে পুতিন বলছেন ইউক্রেন বিরোধী নন অন্যদিকে দেশটিতে ব্যাপক আকারে সৈন্য সমাবেশ ঘটিয়ে ভযাবহ যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন। আমি মনে করি, আলোচনার পথ এখনও খোলা আছে।

এ সময় ইউক্রেনের সাধারণ নাগরিকদের ওপর রাশিয়া পরমাণু অস্ত্র নিক্ষেপ করার কোনো শঙ্কা আছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শলজ বলেন, তারাও এমন আশঙ্কাই করছেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা যুদ্ধের পরিস্থিতি সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করছি। রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্র ব্যাবহারের প্রস্তুতির বিষয়টি নিয়ে এ মুহূর্তে কিছু বলা মুশকিল। তবে আমরা অভিযোগ শুনেছি। ইইউ ও ন্যাটো বাহিনী এ বিষয়ে সজাগ দৃষ্টি রাখছে।

এমনকি ইউক্রেনের ইউরোপীয় ইউনিয়নে অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাবটি ভাবনার মধ্যে আছে বলেও বৈঠকে জানান চ্যান্সেলর শলজ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে