টাচ নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার অন্যতম সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন “ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামিলি”র আয়োজনে বাৎসরিক পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত। স্থানীয় সময় রবিবার (৬ মার্চ ) এ পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

প্রবাসের মাটিতে ব্যস্ত জীবনধারার পাশাপাশি আমাদের প্রবাসী বাংলাদেশীরা যেভাবে বাংলার কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ঐতিহ্য ধরে রেখেছেন এবং তার চর্চা করে যাচ্ছেন, তা সত্যিই প্রশংসনীয়।

সংগঠনের কর্ণধার, আবু রুমী জানিয়েছেন যে, বিগত বেশ কিছু বছর ধরে “ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামিলি” এই পিঠা উৎসবের আযোজন করে আসছে এবং মেলায় পিঠা-পুলির পাশাপাশি বসে নানা বাহারী পণ্যের, পোশাক থেকে শুরুর করে অলংকার কিছুই বাদ যায় না।

এছাড়া সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো প্রবাসীদের পিঠার স্টল যেখানে প্রায় ৫০-৬০ ধরণের পিঠার আয়োজন করা হয় এবং ভিন্ন ভিন্ন স্টল তাদের নিজস্ব পিঠা পরিবেশন করেন এবং মেলায় অংশগ্রহণকারীরা তাদের চির পরিচিত পিঠার স্বাদ গ্রহণ করার পাশাপাশি সবার সাথে মেতে উঠেন মিলনমেলায়।

কোভিড অতিমারীর কারণে বিগত দু’বছর এই আয়োজন সঙ্গত কারণেই স্থগিত করা হলেও বর্তমানের পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামিলির আয়োজনে এবার আবারও এই আনন্দ-উৎসবে মেতে উঠেছেন ওয়াশিংটন মেট্রো এলাকার প্রবাসী বাঙালিরা।

মেলায় নানা পণ্যের বাহার, পিঠা-পুলির স্বাদ এবং মিলনমেলার আনন্দময় আয়োজন ছাড়াও রয়েছে স্থানীয় জনপ্রিয় শিল্পীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা, যা অনুষ্ঠানকে এনে দেয় ভিন্ন মাত্রা। সবাই মহা আনন্দ উৎসবে যেন মেতে উঠে বর্ণীল সন্ধ্যার আয়োজনে। যেন ফিরে পেতে চায় প্রবাসের মাটিতে একখন্ড বাংলাদেশকে। এভাবেই গড়ে উঠে মাটির টানে দেশের সাথে প্রবাসের নাড়ির টান, এবং এটা অত্যন্ত গর্বের বিষয় যে প্রবাসের মাটিতে আমাদের প্রবাসী বাঙালিরা এভাবে ধরে রেখেছেন আমাদের বাঙালি কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ঐতিহ্যের ধারা এবং তুলে ধরার প্রয়াস পাচ্ছেন আমাদের নতুন প্রজন্মের কাছে এবং মূলধারার মানুষের কাছে।

আমাদের প্রত্যাশা, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্রবাসী সংগঠনগুলো এমনিভাবে এগিয়ে নিয়ে যাক আমাদের বাংলার কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ঐতিহ্য, ছড়িয়ে পড়ুক আমাদের বাংলা সবখানে, পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে