টাচ নিউজ ডেস্ক: দেশে করোনার বিস্তার রোধে চলমান কঠোর বিধিনিষেধের (লকডাউন) মধ্যেই যাত্রী পরিবহনের সময় পুলিশ বিভাগের লোগোযুক্ত নম্বরবিহীন একটি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল থেকে ঢাকার পথে যাত্রী প্রতি দুই হাজার টাকা ভাড়া আদায় করে গাড়ীতে যাত্রী নিয়ে ঢাকার পথে রওনা দেয় ওই চালক।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) রাত ১টার দিকে নাটোরের চকরামপুর অতিক্রম করার সময় গাড়িটি জব্দ করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ বিভাগের ২৬ সিটের একটি গাড়ি ৪০ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকায় ফিরছিল।

শুধু তাই নয়, বাসটি নাটোর শহরের চকরামপুর অতিক্রম করার সময় পাথরবোঝাই একটি ট্রাকের সঙ্গে লেগে গ্লাস ভেঙে যায়। এতে ট্রাকচালক তোরাব আলী ও হেলপার কাসেমকে মারধর করে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেন বাসচালক ফিরোজ হাসান।

এসময় স্থানীয় এক তরুণ জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে বিষয়টি জানালে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়ে গাড়িটি থানায় নিয়ে যায়।

এ সময় বাসচালক ফিরোজ হাসান জানান, মঙ্গলবার ঢাকার রাজারবাগ থেকে সাতজন পুলিশ অফিসার নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে যান। ফেরার পথে পুলিশ টেলিকম অ্যান্ড ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বরত ওসি টান্সপোর্ট রেজাউল করিমের নির্দেশে নাচোল থেকে ৪০ জন গার্মেন্টস কর্মী নিয়ে ঢাকার পথে রওনা হন।

এ বিষয়ে পুলিশ টেলিকম অ্যান্ড ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, চালক যাত্রী নিয়ে বাঁচার জন্য আমার কথা বলেছেন। এটি অনিয়ম হয়েছে। এ রকম ভুল আর হবে না বলে তিনি সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করেন।

নাটোর সদর ওসি (তদন্ত) আব্দুল মতিন বলেন, পুলিশ টেলিকমের বাসটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে। তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে