টাচ নিউজ ডেস্কঃ লিওনেল মেসির বেতন জোগাতে অন্তত সাতজন খেলোয়াড়কে ঘড়ছাড়া করতে পারে পিএসজি। এই তালিকায় আছেন রাফিনহা ও লেভিন কুরজাওয়া, সার্জিও রিকো, কলিন দাগবা, আবদু দিয়ালো, এরিক দিনা ও মাউরো ইকার্দি। খবর দ্য মিররের।

পিএসজিতে লিওনেল মেসি প্রতি বছর পান ৪১ মিলিয়ন ইউরো করে, যা অন্য সবার চেয়ে অনেকটাই বেশি। সব মিলিয়ে খেলোয়াড়দের পেছনে ফরাসি ক্লাবটিকে খরচ করতে হয় ৩০০ মিলিয়ন ইউরোর কাছাকাছি, যা জোগানো কঠিনই বটে। অথচ ৩৫ সদস্যের দল থেকে কয়েকজনকে বিক্রি করে দিলেই এই ঝামেলায় পড়তে হয় না ক্লাব সভাপতি নাসের আল খেলাইফিকে। সেটা তো করতে চাইতেই পারে ফরাসি ক্লাবটি!

আগামী বছরের জানুয়ারি থেকে শুরু হবে ইউরোপিয়ান ফুটবলের দল বদলের বাজার। দল বদলের এই বাজারে উল্লিখিত সাতজনকে বেচে দিতে তাই আপ্রাণ চেষ্টাই করতে পারে ফরাসি জায়ান্টরা। না হলে যে উয়েফার ফেয়ার প্লের মারপ্যাঁচে পড়তে হতে পারে মেসি-নেইমারদের ক্লাবকে।

এ মৌসুমে বেশ কয়েকজন নামিদামি খেলোয়াড়কে দলে নিয়ে আসলেও পিএসজিকে খুব বেশি অর্থ ব্যয় কর‌তে হয়নি। দানিলোর জন্য তাদের খরচ হয়েছে মাত্র ১৬ মিলিয়ন ইউরো, ইন্টার মিলান থেকে ফর্মের তুঙ্গে থাকা আশরাশ হাকিমিকে কিনতে তাদের দিতে হয়েছে ৬০ মিলিয়ন ইউরো। তবে এবার বেতন জোগাতে কিছুটা হিমশিম খেতেই হচ্ছে তাদের। সেটা সামলাতে এবার খেলোয়াড় বেচতে চায় পিএসজি, পাশাপাশি এত বড় সদস্যের দল না রেখে কিছুটা লাভও করতে চায় ইউরোপের নয়া জায়ান্টরা।

আরও পড়ুন: রোনালদোর রেকর্ডে ভাগ বসালেন লেওয়ানডোস্কি

লিওনেল মেসি, সার্জিও রামোস, জিয়ানলুইজি দোন্নারুমা, আশরাফ হাকিমি, জর্জিনিও উইনাল্ডামদের বেতনের পেছনে বড় অঙ্কের অর্থ ব্যয় করতে হচ্ছে পিএসজিকে। এদের মধ্যে মেসি, রামোস, দোন্নারুমা, উইনাল্ডামদের ফ্রিতে কিনেছেন নাসের আল খেলাইফি। এসি মিলানের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হলে পিএসজিতে নাম লেখান দোন্নারুমা, উইনাল্ডামও ফ্রিতেই এসেছেন নেইমার-এমবাপ্পেদের দলে। লিওনেল মেসিকে তো ভাগ্যগুণেই পেয়ে গেছে পিএসজি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে