রাসেল হোসেন, মিরপুর প্রতিনিধিঃ সম্পাদক নঈম নিজাম ও ইমদাদুল হক মিলন, সহ সিনিয়র সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানী মিরপুরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বরে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। এতে বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেন।

সম্পাদক মিজানুর রহমান মোল্লা বলেন, অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে দুর্নীতির খবর প্রকাশ করায় স্বনামধন্য সম্পাদক ও সাংবাদিকদের মামলার আসামি করা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও উদ্বেগের বিষয়। এ ধরনের মামলা স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মুক্ত গণমাধ্যমসহ সাংবাদিকদের নিরাপত্তার জন্য হুমকি স্বরূপ। এটা যেন দুর্গন্ধযুক্ত মানুষ মামলা করেছে ক্লিন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে। এটা আমরা মেনে নিতে পারি না। আর সেজন্যই আমরা গণমাধ্যমকর্মীরা এর বিরুদ্ধে অবস্থান করছি।

সিনিয়র সাংবাদিক এস এম জহিরুল ইসলাম বলেন, আমাদের মাঝে মতের মিল অমিল থাকতেই পারে কিন্তু সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে হামলা মামলা হলে সম্মলিতভাবে প্রতিবাদ করে তাদের রুখতে হবে। বক্তারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের আদালতে হুইপ শামসুল হক চৌধুরী কর্তৃক দ্বায়েরকৃত ষড়যন্ত্রমূলক মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান।

 রাজধানীর মিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ম. চঞ্চল মাহমুদ এ মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে বলেন, দেশের শীর্ষ স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের সুনাম ক্ষুণ্ন করার জন্য যারা এ মিথ্যা মমলা করেছেন, তাদের ষড়যন্ত্র কখনো সফল হবে না। একইসঙ্গে মিথ্যা মামলার মাধ্যমে রাষ্ট্র ও সমাজকে বিতর্কিত না করার অনুরোধ জানাচ্ছি আমরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- মিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ম. চঞ্চল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রিপন, জাগো কণ্ঠের সম্পাদক মো. আলী মুবিন, সংবাদ মোহনার সিনিয়র রিপোর্টার মো. মোমিন, মুভি বাংলার স্টাফ রিপোর্টার রাজু আহমেদ, টুয়েন্টিফোর লাইভের প্রতিবেদক মোকলেস খান, দৈনিক সোনালী খবরের সম্পাদক মনিরুজ্জামান মিয়া, এশিয়ান টেলিভিশনের রিপোর্টার শাহারিয়ার মাসুম, প্রতিবেদক মো. দীন ইসলাম, দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদক এনামুল হক ইমন, দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার প্রতিবেদক সাজেদুর রহমান সাজু, সিএনবিডির সম্পাদক এস এম ইমন, দৈনিক বাংলাদেশের সংবাদ পত্রিকার প্রতিবেদক বাহাউদ্দিন তালুকদার, প্রতিদিনের ডাক.কমের সম্পাদক মো. সোহাগ, দৈনিক উচ্চকণ্ঠ পত্রিকার প্রতিবেদক রাকিবুল হাসান রনি, দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার প্রতিবেদক এস এম আর শহীদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম, গোলাম মর্তুজা পাপ্পু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ১৮ আগস্ট সংবাদ প্রকাশের ঘটনায় চট্টগ্রামের আদালতে কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, ইংরেজি দৈনিক ডেইলি সানের সম্পাদক ইনামুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক ও নিউজটোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম, বাংলানিউজের সম্পাদক জুয়েল মাজহার, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাংবাদিক সাইদুর রহমান রিমনসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের আদালতে হুইপ শামসুল হক চৌধুরী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেন ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে