টাচ নিউজ ডেস্কঃ টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ডুমুরিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে বিশাল জায়গা জুড়ে মধুমতির ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। বহু বছর ধরে অনবরত নদীপাড় ভাঙতে থাকায় ঘরবাড়ি ও কৃষি জমি বিলীন হচ্ছে। এলাকাবাসী বিভিন্নভাবে ভাঙন ঠেকাতে চেষ্টা করলেও শেষ রক্ষা হচ্ছে না। অনেক পরিবার বাপ-দাদার ভিটেবাড়ি হারিয়ে ভাড়া বাড়িতে আবার কেউ সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরে বসবাস শুরু করছেন।  নদী ভাঙন ঠেকানো না গেলে এর প্রভাব গুচ্ছগ্রামেও পরবে। তাই ভাঙন প্রতিরোধে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ প্রয়োজন বলে মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, আগে সহকারী কমিশনার ভূমি, ইউএনও, জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার আশ্বাস দিলেও কোন পদক্ষেপ নেননি তারা।

টুঙ্গিপাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ সহকারী প্রকৌশলী রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘কয়েকমাস হলো আমি টুঙ্গিপাড়ায় যোগদান করেছি। নদী ভাঙনের ব্যাপারে আপনাদের মাধ্যমে জানতে পারলাম। ভাঙনকবলিত স্থান পরিদর্শন করে কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ কে এম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে