টাচ নিউজ ডেস্কঃ ভারত থেকে দলে দলে রোহিঙ্গা শরণার্থী বাংলাদেশে প্রবেশ করছে বলে অভিযোগ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেছেন, ‘ভালো খাওয়া-দাওয়ার আশায় ভারত থেকে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আসছেন। এটা আমাদের জন্য দুশ্চিন্তা। রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে।’

মঙ্গলবার (১৭ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, ‘সম্প্রতি ভারত থেকে দুর্ভাগ্যবশত অনেক রোহিঙ্গা আসছে। এ রোহিঙ্গারা নয় বছর আগে ওখানে (ভারতে) গিয়েছিল, বিভিন্ন প্রদেশে ছিল। এখন তারা শুনেছে, বাংলাদেশে এলে তারা ভালো খাওয়া-দাওয়া পাবে। জাতিসংঘ ওদের খুব ভালো খাবার দেয়। আমাদের দেশে কক্সবাজার যারা আছে, তারা খুব সুখে আছে। রোহিঙ্গাদের আত্মীয়-স্বজনরা তাদের এখানে আসার খবর দিয়েছে। ফলে, তারা এখন দলে দলে আমাদের দেশে আসছে। দুঃসংবাদ হচ্ছে, তারা যেখানে ফেন্স (বেড়া) আছে, গেট আছে ওইগুলো তারা ম্যানেজ করছে। ওপারে দালাল আছে, এপারেও আছে। যেখানে ফেন্স আছে, সেখান দিয়েও তারা ঢুকছে।’

ভারত থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রেবেশ করা অনেক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে বলেও জানান ড. মোমেন। তিনি বলেন, ‘যারা আসছে, আমরা কিছু আটকও করেছি। ওদের মূল কারণটা জিজ্ঞেস করলে বলছে, তোমরা ভালো খাবার দিচ্ছ। আমরা এত বছর ভারতে কষ্টে ছিলাম। তারা এখানে না এসে মিয়ানমারে যেতে পারে। ওখানে যায় না, এখানে আসে তারা।’

বাংলাদেশে অনুপ্রেবেশ করা কত রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে, জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বেশকিছু আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে আমরা আরও ১৮ জনকে ধরলাম। প্রায়ই ধরছি একটু একটু করে।’

আসন্ন ভারত সফর বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী ৩০ মে দিল্লিতে জেসিসির (জয়েন্ট কনসালটেটিভ কমিশন) বৈঠক হবে। সেখানে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অনেক বিষয়ে আলোচনা হবে। এছাড়া, আগামী ২৮ মে আসামের গৌহাটিতে নদী কনফারেন্স হবে। সেখানে আমি যোগ দেব। গৌহাটি আমার খুবই পরিচিত এলাকা। ১৯৭১ সালে সেখানে আমি ছিলাম।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে