টাচ নিউজ ডেস্কঃ বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পাননি বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ

রোববার (৫ ডিসেম্বর) সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার জন্য মুম্বাই বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাকে আটকে দেওয়া হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর এ অভিনেত্রীকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। এনডিটিভি এ খবর প্রকাশ করেছে।

সংবাদমাধ্যমটির এ প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আপাতত ভারতের বাইরে যাওয়ার অনুমতি নেই জ্যাকলিনের। আজ দিল্লি অফিসে হাজির হওয়ার জন্য ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটর (ইডি) তাকে নতুন সমন জারি করবে।

ভারতের আলোচিত প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকলিনের ঘনিষ্ঠ ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ছবিটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে সুকেশের সঙ্গে জ্যাকলিনের প্রেমের গুঞ্জন চাউর হয়েছে। অনেকেই ধারণা করছেন, সুকেশ ও জ্যাকলিনের সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিল।

সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে ২০০ কোটি রুপির একটি মানি লন্ডারিং মামলা রয়েছে। এছাড়া তিনি প্রতারণা করে কোটি কোটি রুপি হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ। তদন্ত সংস্থাটি মানি লন্ডারিং মামলায় সুকেশ চন্দ্রশেখর এবং অন্যদের বিরুদ্ধে দিল্লির একটি আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে। অভিযোগ করেছে সুকেশ তিহার জেলে থাকা অবস্থায় একজন ব্যবসায়ীর স্ত্রীর কাছ থেকে ২০০ কোটি রুপি চাঁদাবাজি করেছেন। চন্দ্রশেখর জ্যাকলিনকে অর্থ দিয়েছেন। আর্থিক লেনদেনের প্রমাণও পেয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) দেওয়া তথ্যমতে, সুকেশ চন্দ্রশেখর স্বীকার করেছেন, জ্যাকলিনকে ৫২ কোটি রুপি মূল্যের একটি ঘোড়া উপহার দিয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, ‘কিক’ সিনেমাখ্যাত এই অভিনেত্রী বিড়াল পছন্দ করেন। এজন্য তাকে ৯ লাখ রুপির বিড়ালও উপহার দিয়েছেন সুকেশ। তিহার জেল থেকে জ্যাকলিনকে ফোন করতেন তিনি। চকোলেট, ফুলের তোড়াও পাঠাতেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে