টাচ নিউজ ডেস্ক: দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারতে অবৈধভাবে অবস্থানের দায়ে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্র থেকে ৪০ জন বাংলাদেশিকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) মুম্বাইয়ের ভিওয়ান্ডি ও এর আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে বার্তা সংস্থা এএনআই এবং সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউ জানায় বৈধ কোনো কাগজপত্র ছাড়াই দীর্ঘদিন যাবত তারা দেশটিতে বসবাস করে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

ভারতীয় এক কর্মকর্তার বরাতে মিডিয়াগুলো বলছে, মুম্বাইয়ের পার্শ্ববর্তী থানে জেলার অধীনস্থ ভিওয়ান্ডি শহর ও এর আশপাশের এলাকা থেকে ওই ৪০ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়। এ সময় অভিযুক্তদের অনেকের কাছ থেকে জাল পাসপোর্ট ও পরিচয়পত্র জব্দ করা হয়।

ভিওয়ান্ডি শহরের জোন-২ এর ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশ (ডিসিপি) যোগেশ চভন গণমাধ্যমকর্মীদের বলেছেন, আটককৃত বাংলাদেশিরা বিভিন্ন স্থানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন এবং তিনটি পৃথক পুলিশ স্টেশনের অধীনস্থ এলাকায় বসবাস করতেন।

তিনি জানিয়েছেন, আটককৃতদের কাছে ভারতে অবস্থানের বৈধ কোনো কাগজপত্র ছিল না। আর তাই আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট আইনে এবং বিদেশি নাগরিক আইনে মামলা দায়ের করা হয়। এবার বেশ কয়েকটি তল্লাশি অভিযানের মাধ্যমে অভিযুক্তদের আটক করা হয়েছে।

ভারতীয় মিডিয়া টাইমস নাউ জানিয়েছে, মুম্বাইয়ের শান্তিনগর এলাকা থেকে মোট ২০ জন বাংলাদেশিকে এরই মধ্যে আটক করা হয়েছে। অন্য দিকে ভিওয়ান্ডি শহর এবং নারপোলি পুলিশ স্টেশন এলাকা থেকে ১০ জন করে বাংলাদেশিকে মঙ্গলবার আটক করা হয়।

আটকের সময় ওই ৪০ বাংলাদেশির কাছ থেকে জাল পাসপোর্ট, ভুয়া আধার কার্ড এবং প্যান (পার্মানেন্ট অ্যাকাউন্ট নাম্বার) কার্ড জব্দ করা হয়। এছাড়া তাদের কাছ থেকে ২৮টি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করে পুলিশ। ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য ৯৪ হাজার রুপি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে