টাচ নিউজ ডেস্ক: নিজ মামার লালসার শিকার হয়েছেন ভাগ্নি। আর এর প্রেক্ষিতে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ভাগ্নিকে ধর্ষণ করেছেন মামা। এ ঘটনা যাতে কাউকে না বলে সেজন্য মৃত্যুর ভয়ও দেখানো হয় তাকে। তবে তবে মেয়েটি পরিবারের লোক বাড়িতে ফিরলে পুরো ঘটনাটি বলে দেয় তাদের।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের শোনিপতের কুন্দলি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে দেশটির গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়। মেয়েটির মেডিকেল পরীক্ষায় মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে প্রমাণিত হয়। অভিযুক্ত মামাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

খবরে বলা হয়, বাড়িতে কেউ থাকছে না তাই নিজের মেয়েকে নিজের ভাইয়ের কাছে রেখে গিয়েছিলেন তার মা। আর এই সুযোগে ফাঁকা বাড়িতে ভাগ্নিকে ধর্ষণ করে মামা। তারপর তাকে ভয় দেখান এ ঘটনা বরে দিলে ভালো হবে না। এমনকি মৃত্যুর ভয় দেখানোও হয় তাকে। এরপর মেয়েটিকে ওই অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় মামা। পরে পরিবারের লোকজন বাড়িত ফিরে আসলে সব খুলে বলে মেয়েটি।

এ ঘটনায় মামার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করে মেয়েটি। মেডিকেল পরীক্ষায় মেয়েটির ধর্ষণ হয়েছে প্রমাণিত হয়ছে। অভিযুক্ত মামাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে