টাচ নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির দুই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত ও বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি চেয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বুধবার (৩ মার্চ) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আবেদনটি এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। এরপর সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে তার পরিবার চিঠি পাঠিয়েছে তা আমরা গ্রহণ করেছি। এখন এটি সংশ্লিষ্ট আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠাব।’

এর আগে, খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে দেখা করে এ সংক্রান্ত আবেদন করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিতের মেয়াদ আবারও বাড়ানো এবং বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি চেয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে। বুধবার (৩ মার্চ) মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সারাবাংলাকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ সংক্রান্ত আবেদনপত্র হস্তান্তর করেছেন।

গত বছরের ২৫ মার্চ ১৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার সাজা ৬ মাস স্থগিত করে তাকে মুক্তি দেয় সরকার। পরে দ্বিতীয় দফায় তার সাজার স্থগিতাদেশ আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়।

খালেদা জিয়া বর্তমানে গুলশানে ভাড়া বাসা ‘ফিরোজা’য় আছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে