টাচ নিউজ ডেস্কঃ আমি ৩৫ তম বিসিএসে টিকেছিলাম এরপরও আপনাদের সেবা করার জন্য আমি ছাত্রলীগ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিলাম বললেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস।  অনুষ্ঠিত। সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে  বলেছেন, ।রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ হল সম্মেলনে তিনি এ কথাে বলেন।

জাতীয় সংগীত, দলীয় সংগীত ও পায়রা উড়িয়ে এ সম্মেলন উদ্বোধন করা হয়।

এ সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, বিভিন্ন হলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন হলের পদপ্রত্যাশীরা উপস্থিত ছিলেন।

সনজিত বলেন, যারা বিসিএস প্রিলিতে টিকেছেন, পড়াশোনা করছেন তারা পড়াশোনাটা চালিয়ে যাবেন। আমি ৩৫ তম বিসিএসে টিকেছিলাম, আমি ৯ম জুডিশিয়াল পরীক্ষায় টিকেছিলাম এরপরও আপনাদের সেবা করার জন্য আমি ছাত্রলীগ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিলাম। তাই পড়াশোনা করে যে ছাত্রলীগের নেতা হতে পারবেন না এই কথাটা ভুল। যা প্রমাণ করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি আরো বলেন, আমি এখনো পড়াশোনা করি, সাদ্দাম পড়াশোনা করে, জয় ভাই, লেখক দা’ও পড়াশোনা করে৷ আপনারা পড়াশোনা করেন এবং সামনেও করবেন তাহলেই যোগ্য নেতা হয়ে উঠবেন। প্রত্যেকের মা-বাবার স্বপ্ন রয়েছে, সেই স্বপ্নকে লালন করে পড়াশোনার মাঝে ছাত্র রাজনীতি করবেন। মা-বাবার স্বপ্ন ভঙ্গ করা যাবে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে