টাচ নিউজ ডেস্কঃ বিনা অভিযোগে দীর্ঘ তিন বছর কারাভোগের পর অবশেষে সৌদি আরবের এক রাজকন্যা ও তার মেয়েকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। দেশটির কর্তৃপক্ষ রাজধানী রিয়াদের একটি কারাগার থেকে এই রাজকন্যা ও তার সন্তানকে মুক্তি দেয় বলে শনিবার (৮ জানুয়ারি) একটি মানবাধিকার সংস্থা জানিয়েছে।

নারী অধিকার এবং সাংবিধানিক রাজতন্ত্রের পক্ষে দীর্ঘদিন যাবত লড়াই চালিয়ে আসা সৌদি রাজ-পরিবারের সদস্য ৫৭ বছর বয়সী বাসমা বিনতে সৌদকে ২০১৯ সালের মার্চ মাস থেকে আটক করে রাখা হয়েছিল। ২০২০ সালের এপ্রিলে সৌদি বাদশাহ সালমান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কাছে স্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে মুক্তির অনুরোধ জানিয়েছিলেন তিনি।

মানবাধিকার সংস্থা এএলকিউএসটি ফর হিউম্যান রাইটস টুইট বার্তায় জানিয়েছে, বাসমা বিনতে সৌদ আল সৌদ ও তার মেয়ে সুহৌদকে… মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

সৌদির মানবাধিকার এই সংস্থাটি বলছে, শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবার দরকার হলেও তা দিতে অস্বীকার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। আটকে রাখার এই সময়ে তার বিরুদ্ধে কোনো ধরনের অভিযোগই আনা হয়নি।

যদিও বাসমার মুক্তির বিষয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষের মন্তব্য তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি।

সৌদি এই রাজকন্যার পরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বলছে, চিকিৎসার জন্য পূর্ব নির্ধারিত সুইজারল্যান্ড সফরে যাওয়ার আগ মুহূর্তে ২০১৯ সালের মার্চে রাজকন্যা বাসমাহকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু তিনি ঠিক কী ধরনের অসুস্থতায় ভুগছেন তা কখনোই প্রকাশ করা হয়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে