টাচ নিউজ ডেস্ক: বাংলা‌দেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে গিয়ে যারা বিদ্রোহ করেছে তাদেরকে আগামীকাল রোববার থেকে শোকজ করা হবে। তা‌দের বিষ‌য়ে দলীয় সিদ্ধান্তই বাস্তবায়ন করা হবে। তিনি বলেন, শুধু বিদ্রোহী প্রার্থীর বিরুদ্ধে নয়, বিদ্রোহীদের মদদদাতা মন্ত্রী-এমপিদের বিরুদ্ধেও দলীয় সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে। শ‌নিবার দুপু‌রে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের যুগ্ম-সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের বৈঠক শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতার অভিযোগে ১৫০ জনের মতো বিদ্রোহী প্রার্থীর ও তাদের মদদদাতাকে শোকজ করা হবে। তা‌দের মধ্যে কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতারাও থাকতে পারেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের শোকজ করার সিদ্ধান্ত আগে থেকেই ছিল। আজকে সেটা বাস্তবায়নের প্রসেস কীভাবে দ্রুত করা যায়, সেটা আলোচনা করেছি। রোববার থেকে ১৫০ এর মতো প্রার্থীর বিরুদ্ধে শোকজ নোটিশ ইস্যু হবে। শোকজের জবাবের জন্য তিন সপ্তাহ সময় দেয়া হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, বিদ্রোহী প্রার্থীদের মদদদাতা মন্ত্রী-এমপিরাও শোকজ নোটিশ পাবেন। তবে অভিযুক্ত এসব মন্ত্রী-এমপির নাম প্রকাশ করতে চাননি কাদের।

তিনি বলেন,‘মদদদাতাদের মধ্যে কেন্দ্রীয় নেতাও থাকতে পারেন। যাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ও মদদ দেয়ার অভিযোগ আছে, তারা সবাই শোকজ নোটিশ পাবেন।’

জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগের কোনো ‘শাখা সংগঠন’ নয় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, জাতীয় পার্টির সমস্যাটা নিজেদের। তাদের সমস্যা তারাই সমাধান করুক। এটা নিয়ে আমরা কথা বলতে চাই না। আর জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগের কোনো ‘শাখা সংগঠন’ নয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে