টাচ নিউজ ডেস্কঃ স্বপ্ন ছিল পড়ালেখা শেষ করে বাবা-মায়ের মুখে হাসি ফোটাবে। সেই স্বপ্ন এখন ফিকে হতে বসেছে ঢাকা কলেজের ইতিহাস বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের শিক্ষার্থী মো. সাইফুলের।

বছর খানেক আগে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন সাইফুল ৷ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রতঙ্গ শুকাতে শুরু করে। ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসক জানান তার দুটি কিডনি নষ্ট ৷ দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে পরিবার থেকে প্রায় ১৫ লাখ টাকা খরচ হয়েছে ৷ সপ্তাহে দুদিন ডায়ালাইসিসসহ প্রতিমাসে চিকিৎসা ব্যয় এখন এক লাখ টাকা।

সাইফুলের পরিবার এখন নিঃস্ব প্রায়। চিকিৎসকের পরামর্শে করতে হবে কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট ৷ এখন প্রয়োজন আরও প্রায় ১০ লাখ টাকা ৷ সাইফুলের পরিবারের পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা অসম্ভব। এমন পরিস্থিতিতে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছে সাইফুল ও তার পরিবার।

সাইফুলের বাড়ি বরিশালের মুলাদী থানার চরমালিয়া গ্রামে। রিয়াজুল হক ও মমতাজ বেগমের তিন সন্তানের মধ্যে সাইফুল মেজো। বাবা রিয়াজুল হক একটি কিডনি দান করে সন্তানকে বাঁচাতে চান ৷ এ জন্য শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ চলমান। এমনিতেই নদীভাঙনে বসতভিটা হারিয়েছেন তারপর সন্তানের চিকিৎসায় দীর্ঘদিনের জমানো সব অর্থই শেষ করেছেন। সন্তানের চিকিৎসায় সমাজের বিত্তবানদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন সাইফুলের বাবাও।

ঢাকা কলেজের এই শিক্ষার্থী সাইফুল বলেন, স্বপ্ন ছিল ঢাকা কলেজ থেকে পড়ালেখা শেষ করে চাকরি নিয়ে পরিবারের মুখে হাসি ফোটাবো। এখন বেঁচে থাকাটাই আমার কাছে স্বপ্নের মতো মনে হয়। আমি বাঁচতে চাই। আবারও ক্লাসে ফিরতে চাই। সবাই যদি একটু সহযোগিতা করে আল্লাহর ইচ্ছায় আমি নতুন জীবন পাবো। আমি সকলের কাছে সাহায্য প্রত্যাশী।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা
মো. সাইফুল
হিসাব নম্বর- ২০৫০৭০৬০২০০০২৪৭১৪ (এমএসএ-২৪৭)
ইসলামী ব্যাংক, জিঞ্জিরা শাখা, ঢাকা।
বিকাশ ও নগদ অ্যাকাউন্ট: ০১৯১৩-৭৫৪১৯৮
রকেট: ০১৭৭৫-২৭২৮৭০

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে