টাচ নিউজ ডেস্ক: বরিশালের ব্যাপ্টিমিশন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তার পাশের ড্রেন থেকে এক নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম নবজাতকের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে কোতোয়ালি থানা পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

পুলিশ জানায়, বরিশাল সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মী আব্দুল মালেক ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে গিয়ে ব্যাপ্টিমিশন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তার পাশের ড্রেনে কাগজের একটি কার্টনের মধ্যে নবজাতকের মরদেহ দেখতে পান। তিনি বিষয়টি দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্যকে জানান। তিনি বিষয়টি থানায় জানান। পরে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

কোতোয়ালি থানার ওসি নুরুল ইসলাম বলেন, নবজাতকের বয়স একদিন হবে। ধারণা করা হচ্ছে, অবৈধ মেলামেশার কারণে শিশুটির জন্ম হয়েছে। পরে অভিভাবকরা রাতের কোনো এক সময় তাকে সড়কের পাশের ওই ড্রেনে ফেলে যান। তবে নবজাতকটির জন্ম নেওয়ার পর মৃত্যু হয়েছে, নাকি মৃত ভূমিষ্ঠ হয়েছে বা মেরে ফেলা হয়েছে তা ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ছাড়া নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত ও ডিএনএ সংরক্ষণের জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আশপাশের এলাকায় খোঁজ নেয়া হচ্ছে কেউ সন্তান প্রসব করেছেন কি না। নবজাতকটির বাবা-মায়ের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। চিহ্নিত করা গেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে