টাচ নিউজ ডেস্কঃ গাজীপুরের শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে গত ২২দিনে ৯টি জেব্রার মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু মৃত্যুর কারণ জানাতে পারেনি পার্ক কর্তৃপক্ষ। কারণ অনুসন্ধানে আজ বিশেষজ্ঞদের বৈঠক বসার কথা রয়েছে।

চলতি বছরের ২ জানুয়ারি থেকেই হঠাৎ একের পর এক মারা যাচ্ছে জেব্রা। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল পর্যন্ত মোট ৯টি জেব্রা মারা গেছে বলে জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের প্রকল্প পরিচালক মো. জাহিদুল কবির।

তিনি বলেন, মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান চলছে। প্রতিটি জেব্রার মরদেহ ময়নাতদন্ত হয়েছে। মরদেহের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। জেব্রার অস্বাভাবিক মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে, খাদ্যে বিষক্রিয়া, বিষ প্রয়োগ, ভাইরাস- ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণসহ নানা বিষয় মাথায় রেখেই আজ পার্কের অভ্যন্তরে বিশেষজ্ঞদের বৈঠক বসবে।

সাফারী পার্ক সূত্রে জানা যায়, পার্কটিতে মোট ৩১ টি জেব্রা ছিল। ৯টির মৃত্যুর পর এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১টিতে। প্রথম দিন জেব্রা মারা যাওয়ার পর মরদেহের নমুনা রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট ( আইইডিসিআর) এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা কেন্দ্রে পাঠানো হয়। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফলাফল বিচ্ছিন্নভাবে এসেছে।

সাফারী পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান বলেন, জেব্রার খাবার মূলত বিভিন্ন ধরনের ঘাস। সাফারি পার্কে জেব্রাকে ঘাস সরবরাহ করে মাহবুব এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠান। ওই প্রতিষ্ঠানের একজনকে নিয়ে ঘাস যেসব এলাকা থেকে সংগ্রহ করা হয় সেসব এলাকা পরিদর্শন করছি। ঘাস উৎপাদন করা কৃষকদের সঙ্গে কথা বলেছি। সেখান থেকে বিভিন্ন ধরনের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। সাফারি পার্কের চারণভূমির ঘাস ও মাটি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে