টাচ নিউজ ডেস্কঃ ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে নারীর মাধ্যমে প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রেমিকের সর্বস্ব লুট, নির্জন বাড়িতে আটকে রেখে নির্যাতন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় ও ডাকাতি করতো তারা।

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকা থেকে নারীসহ ডাকাতচক্রের এমনি ৯ সদস্যকে গ্রেফতারকে করেছে র্যা ব।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সিদ্ধিরগঞ্জে র্যাএব কার্যালয়ে র্যা ব-১১’র মেজর মো. হাসান শাহরিয়ার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

এর আগে রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলো মো. নাদিম (২২), মোছা. ফাতেমা বেগম (২১), ফয়সাল (২৮), মো. রুবেল (২৮), মো. বোরহান (৩১), মো. আমীর হোসেন, মো. আরিফ (৩০) ও অপ্রাপ্ত বয়সী দুই নারীসহ ৯ জন। এ সময় নগদ অর্থ, ফোনকল রেকর্ড, ১২টি ফেক ফেসবুক আইডির স্ক্রিনশট, খেলনা পিস্তল এবং একটি মুখোশ জব্দ করা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানান, এ চক্রের সদস্যরা বেনামে ফেসবুকে আইডি খুলে যুবকদের সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করে তাদের ফাঁদে ফেলতো। কৌশল হিসেবে কখনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুখোশ পরা অশ্লীল ছবি ও ভিডিও দিয়ে, আবার কখনো কল গার্ল সার্ভিস দেয়ার ছলে নির্জন স্থানে নিয়ে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র ও খেলনা পিস্তল দেখিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাদের কাছ থেকে নগদ অর্থসহ ব্যক্তিগত মোবাইল ও বিভিন্ন জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিত।

তিনি আরও জানান, ভুক্তভোগীর কাছের আত্মীয়-স্বজনকে ফোন করে তারা মুক্তিপণ হিসেবে বিপুল পরিমাণ অর্থ দাবি করত এবং পরে ব্ল্যাকমেইল করার উদ্দেশে কৌশলে তাদের স্পর্শকাতর ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখত।

গ্রেফতারকৃতদের প্রত্যেকে দীর্ঘদিন ধরে এই ডাকাত চক্রের সক্রিয় সদস্য হিসেবে কাজ করে আসছিল। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে তিনি জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে