টাচ নিউজ ডেস্ক: সরকার আবারও ভোজ্যতেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করে অপরিশোধিত সয়াবিন ও পামতেলের দাম পুনর্নির্ধারণ করেছে ভোজ্যতেল পরিশোধনকারী কোম্পানিগুলো।

ভোজ্যতেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সিটি গ্রুপের মহাপরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষের সঙ্গে বৈঠক করে ভোজ্যতেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে প্রতিলিটার খোলা সয়াবিন তেল বাজারে সর্বোচ্চ ১২৯ টাকা দরে বিক্রি হবে। প্রতিলিটার বোতলজাত সয়াবিনের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫৩ টাকা। পাঁচ লিটার বোতলজাত সয়াবিনের সর্বোচ্চ খুচরা দাম হবে ৭২৮ টাকা। প্রতিলিটার খোলা পাম সুপারের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১১৬ টাকা।

চলতি বছরের মে মাসে প্রতিলিটার খোলা সয়াবিনের দাম ১২৯ টাকা নির্ধারণ করা হলেও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধ ও জনসাধারনের কথা বিবেচনা করে লিটার প্রতি চার টাকা কমিয়ে ১২৫ টাকা দরে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। রবিবারের বৈঠকে মে মাসের নির্ধারিত দর প্রতিলিটার ১২৯ টাকাই পুনর্নির্ধারণ করা হলো। সেই বিবেচনায় খোলা সয়াবিনের দাম বাড়ানো হয়নি বলে দাবি করেন বিশ্বজিৎ সাহা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে