টাচ নিউজ ডেস্ক: গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলে দখলদার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে হাজার হাজার ফিলিস্তিনি। ফলে নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গাজা। ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অবরোধ শিথিলের দাবিতে জড়ো হয় ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীরা। কয়েকদিন আগেও ওই অঞ্চলে একই ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে। কিন্তু ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযানে বিক্ষোভ থামাতে বাধ্য হয় ফিলিস্তিনিরা।

বিক্ষোভে নারী-পুরুষ এমনকি কিশোর এবং বৃদ্ধরাও অংশ নিয়েছেন। এদিকে ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মিসরের সঙ্গে গাজার গুরুত্বপূর্ণ বর্ডার ক্রসিং বৃহস্পতিবার পুনরায় খুলে দেওয়া হচ্ছে।

ফিলিস্তিনি চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কমপক্ষে ১৪ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এদিকে ইসরায়েলি বাহিনী জানিয়েছে, তারা বিক্ষোভ থামাতে টিয়ার গ্যাস এবং সীমিত আকারে গুলি ছুড়েছে।

অপরদিকে হামাসের কর্মকর্তা সোহেইল আল হেন্দি বলেন, রক্তপাত এড়িয়ে চলার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। গাজার ওপর ইসরায়েলের অবরোধ শিথিলে চাপ প্রয়োগের জন্যই মূলত বিক্ষোভে অংশ নেন ফিলিস্তিনিরা।

২০০৭ সালে গাজার নিয়ন্ত্রণ হামাসের হাতে চলে যাওয়ার পর থেকেই ইসরায়েল এবং মিসর এই অবরোধ নিয়ন্ত্রণ করছে। এই অবরোধ গাজার অর্থনীতিতে ধস নামিয়েছে এবং বেকারত্বের হার বেড়ে ৫০ শতাংশের উপরে উঠেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে