টাচ নিউজ ডেস্কঃ ফেনী শহরের ফলেশ্বর এলাকায় কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তারেক নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। ওই কিশোরী ফেনী ল্যাবরেটারি হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত তারেক এলাকায় যুবলীগ নেতা হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি তিনি ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছিলেন। এ ঘটনায় নির্যাতিতার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছে।

নির্যাতিতার ভাই জানান, ফেনী পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের ফলেশ্বর মজুমদার বাড়ি সংলগ্ন ঘরে স্বপরিবারে বসবাস করে আসছেন তারা। দীর্ঘদিন প্রতিবেশী তারেক তার বোনকে উত্ত্যক্ত করলেও তারা ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাননি। মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ তারেক তাদের ঘরে প্রবেশ করে তার বোনকে একা পেয়ে ধর্ষণ করেন। তারেক চলে গেলে ৯৯৯-এ কল করে পুলিশকে বিষয়টি জানান। পুলিশ তার বোনকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নিয়ে আসে।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার পর থেকে তারেক পলাতক। ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য আদালতে পাঠানো হবে।

এদিকে স্থানীয় সূত্র জানায়, তারেক দীর্ঘদিন ফলেস্বর এলাকায় মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্ম করছেন। ক্ষমতাসীন হওয়ায় স্থানীয়রা তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায়নি। তারেক পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলীর অনুসারী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে