টাচ নিউজ ডেস্কঃ লেবাননের বন্দর শহর টাইরে একটি ফিলিস্তিনি শরণার্থী ক্যাম্পে বিস্ফোরণে নিহত এক ব্যক্তির জানাজার সময় গুলিতে আরও চারজন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় রোববার (১২ ডিসেম্বর) এ ঘটনা ঘটে। ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস জানিয়েছে, গুলিতে নিহত ব্যক্তিরা তাদের সদস্য।

শরণার্থী শিবিরের এক বাসিন্দা এএফপিকে জানান, মরদেহ বহনকারী লোকজন মিছিল করতে করতে যাচ্ছিল। সে সময় শরণার্থী শিবিরের কবরস্থানে পৌঁছানোর পর হঠাৎ করেই ভিড় লক্ষ্য করে গুলি শুরু হয়। তিনি বলেন, কে বা কারা গুলি চালিয়েছে তা পরিষ্কার নয়।

হামাস কর্মকর্তা রাফাত আল মুররা জানান, গত শুক্রবার লেবাননের বন্দর নগরী টাইরের বাইরে বুর্জ আল-শেমালি শিবিরে বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত এক ফিলিস্তিনির জানাজায় গুলি চালিয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বি গ্রুপ ফাতাহ’র সদস্যরা। তিনি জানান, ওই ঘটনায় আরও ছয়জন আহত হয়েছেন।

ক্যাম্পের ভেতরের একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) রাতে বুর্জ আল-শেমালি ক্যাম্পে বিস্ফোরণে কমপক্ষে এক ডজন লোক আহত হন। এসময় কয়েকজনের প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়। লেবাননে ফিলিস্তিনি ক্যাম্পে জানাজায় গুলি, নিহত ৪

এনএনএ’র খবরে বলা হয়, ক্যাম্পের ভেতর ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের কোনো অস্ত্র গুদামে ওই বিস্ফোরণ ঘটে। এ নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন স্থানীয় এক বিচারক। পরে তা প্রত্যাখ্যান করে স্থানীয় সময় শনিবার হামাস এক বিবৃতিতে জানায়, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে শুক্রবার রাতে ওই বিস্ফোরণ ঘটে।

গাজা উপত্যকায় পার্লামেন্ট নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের ফাতাহ মুভমেন্ট হামাসের কাছে পরাজিত হওয়ার পর ২০০৭ সাল থেকেই হামাস এবং ফাতাহ পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বি হয়ে ওঠে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে