স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, উন্নয়ন প্রকল্প নেয়ার সময় কাঙ্খিত সুবিধাগুলোর পাশাপাশি সম্ভাব্য চ্যালেঞ্জগুলোও বিবেচনায় রাখতে হবে যাতে যথাসময়ে এবং যথাযথভাবে প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব হয়।

গতকাল রাজধানীর কাকরাইলে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও ৪টি ওয়াসার ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি পর্যালোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সহ মন্ত্রণালয় ও সংস্থার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মন্ত্রী কিছু প্রকল্প কেন কাঙ্খিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি তা সংশ্লিষ্টদের নিকট জানতে চান এবং প্রকল্পগুলোর কাজে গতি আনতে প্রকল্প পরিচালক ও সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেন।

সভায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ৪টি, ঢাকা ওয়াসার ৫টি, চট্টগ্রাম ওয়াসার ২টি, খুলনা ওয়াসার ১টি এবং রাজশাহী ওয়াসার একটি প্রকল্পকে মন্থর অগ্রগতিসম্পন্ন প্রকল্প হিসেবে চিহ্নিত করা হয় যার সবগুলোই সুপেয় পানি সরবরাহ সংক্রান্ত প্রকল্প।

মন্ত্রী বলেন, সবাই দেশের কথা চিন্তা করে দায়িত্ব নিয়ে কাজ করলে যে কোন প্রকল্প যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা সহজ হবে। পানি মানুষের অন্যতম মৌলিক অধিকার। কাজেই পানি সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলো নিয়ে অবহেলার কোন সুযোগ নেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে