টাচ নিউজ ডেস্কঃ রুশ আক্রমণ প্রতিহত করার সক্ষমতা রয়েছে এমন ন্যাটো বাহিনী পূর্ব ইউরোপে স্থায়ীভাবে মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে এস্তোনিয়া। বৃহস্পতিবার ন্যাটো সম্মেলনের আগে এস্তোনিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী প্রতিনিধি জোনাতান ভেসিভিয়েভ বলেন, ইউরোপ এবং ন্যাটো জোট আর কোনও দিনই ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর আগের অবস্থায় ফিরতে পারবে না।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ন্যাটো জোটে এস্তোনিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি জোনাতান ভেসিভিয়েভ বলেন, ‘আমরা সম্পূর্ণ নতুন এক নিরাপত্তা পরিবেশে থাকবো। নতুন ইউক্রেন হবে। নতুন রাশিয়া হবে। নতুন ইউরোপ হবে। ফেব্রুয়ারির ২৩ তারিখে ফিরে যাওয়ার উপায় নেই।’

রুশ আগ্রাসন শুরুর পর ২০ হাজারের বেশি ন্যাটো সেনা বাল্টিক রাষ্ট্র, পোল্যান্ড এবং পূর্ব ইউরোপে মোতায়েন রয়েছে। এসব সেনার বেশিরভাগই যুক্তরাষ্ট্রের। এর আগে ওই অঞ্চলে পশ্চিমা সামরিক জোটটির অল্প কয়েক হাজার সেনা ছিল।

জোনাতান ভেসিভিয়েভ বলেন, ‘আমাদের শক্তিবৃদ্ধির ওপর নির্ভরতা কমাতে হবে। প্রথম দিন থেকেই সম্মুখ সারির দেশগুলোতে আরও বেশি প্রতিরক্ষা বাহিনী রাখতে হবে।’ এই বিষয়ে ন্যাটোর অভ্যন্তরে ব্যাপক রাজনৈতিক ঐকমত্য পাওয়া যাবে বলে নিজের বিশ্বাসের কথা জানান ভেসিভিয়েভ।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান নিশ্চিত করেছেন, ইউরোপে ন্যাটো বাহিনীর অবস্থান দীর্ঘ মেয়াদে কেমন হবে তা নিয়ে এই সপ্তাহে আলোচনা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে