টাচ নিউজ ডেস্কঃ পদ্মা নদীতে তীব্র ঘূর্ণিস্রোতের কারণে পদ্মা সেতুর নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সকল প্রকার দুর্ঘটনা এড়াতে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরি চলাচল সাময়িক বন্ধ করা হয়েছে। তবে শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে ফেরি চলাচল করছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল ১০টা থেকে এই সিদ্ধান্ত নেয় ঘাট কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, হঠাৎ ফেরি চলাচল বন্ধ হওয়ায় ঘাটে প্রায় ৫ শতাধিক ছোট বড় গাড়ি আটকে পড়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক (এজিএম, বাণিজ্য) শফিকুল ইসলাম জানান, পদ্মা নদীতে অতিরিক্ত ঘূর্ণিস্রোত থাকায় পদ্মা সেতুর নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এই রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। তবে শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে ফেরি চলাচল করছে।

তিনি বলেন, ‘শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরিগুলো মুলত পদ্মা সেতুর নিচ দিয়ে চলাচল করে এ কারণে অতিরিক্ত ঘূর্ণিস্রোতের তোড়ে ফেরিগুলো নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা লেগে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই নদীতে এ নৌপথে ফেরি চলাচল সম্পুর্ণ বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে, শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি ও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল অব্যাহত আছে। এ নৌপথে মোট ৮২ টি লঞ্চ চলাচল করছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) শিমুলিয়া ঘাটের নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার সহকারী পরিদর্শক ও সহকারী বন্দর কর্মকর্তা মো. শাহাদাত হোসেন জানান, নদীতে অতিরিক্ত ঘূর্ণিস্রোতে ফেরি চলতে অনেক অসুবিধা হয়। কিন্তু লঞ্চে অল্প সমস্যা হলেও চলতে পারে তাই লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল করছে। নদীর স্রোত অনুকূলে এলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে