টাচ নিউজ ডেস্কঃ পদ্মা নদীর শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে চলন্ত দুই ফেরির সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় ৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসি)। বিআইডব্লিটিসি শিমুলিয়া ঘাটের সহ-মহাব্যবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক হলেন বিআইডব্লিউটিসির ডিজিএম (মেরিন) একেএম শাহাজাহান। অপর তিন সদস্য হলেন সংস্থাটির নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান, শিমুলিয়া ঘাটের এজিএম (মেরিন) আহমেদ আলী ও মাঝিকান্দি ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাউদ্দিন। আগামী ৩ কার্যদিবসের মধ্যে ঘটনার বিষয়ে তদন্ত রিপোর্ট দেবে কমিটি।

রোববার (১৯ জুন) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তের টার্নিং পয়েন্টে ফেরি বেগম রোকেয়া ও সুফিয়া কামালের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বিআইডব্লিউটিসি সূত্র জানায়, ফেরি সুফিয়া কামাল ৩০টি যানবাহন নিয়ে শরীয়তপুরের মাঝিকান্দি থেকে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে আসছিলো, একই নৌপথে ৩৪টি যানবাহন ও অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে মাঝিকান্দি অভিমুখে যাচ্ছিলো ফেরি বেগম রোকেয়া। দুটি ফেরি পদ্মা নদীর টার্নিং পয়েন্ট জাজিরা প্রান্তে পৌঁছালে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ফেরি সুফিয়া কামাল ফেরিতে থাকা গাড়িতে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান খোকন শিকদার (৪০) নামের এক গাড়িচালক। আহত হন অন্তত ১০ জন। এ ঘটনায় শামীম মোল্লা নামের অপর আরেকজন নিখোঁজ রয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে